মুহুরী নদীর চার স্থানে ভাঙন, সাত গ্রাম প্লাবিত

June 13, 2018 at 11:51 am

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

ফেনীর পরশুরাম ও ফুলগাজীতে অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলের পানির চাপে মুহুরী নদীর চার স্থানে ভাঙনে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এতে সাতটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

প্লাবিত গ্রামগুলো হলো ফুলগাজীর ঘনিয়ামোড়া, উত্তর দৌলতপুর, উত্তর বরইয়া, দক্ষিণ বরইয়া, পরশুরামের উত্তর শালধর, দূর্গাপুর এবং বাঁশপদুয়া।

গতকাল মঙ্গলবার রাত থেকে মুহুরী নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা জানান, আজ বুধবার সকাল থেকে মুহুরী নদীর পানি ১৫.৭০ সেন্টিমিটারে প্রবাহিত হচ্ছে। এর আগের রাতে ৫০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়েছিল। মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে পরশুরাম উপজেলার চিথলিয়া ইউনিয়নের উত্তর শালধর গ্রামের মহসীন মেম্বারের বাড়ির পাশে এবং রাত দুর্গাপুর গ্রামের আবদুর রহমানের বাড়ির পাশে মুহুরী নদীর দুইটি স্থানে ভাঙনের ফলে চিথলিয়া ইউনিয়নের পাঁচটি গ্রাম প্লাবিত হয়।

চিথলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন জানান, শালধর ও দুর্গাপুর গ্রামে মুহুরী নদীতে দুটি স্থানে ভাঙনের কারণে চিথলিয়া ইউনিয়নের পাঁচটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে মুহুরী নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় মঙ্গলবার রাতে দুটি স্থানে ভাঙন দেখা দেয়।

ফেনীস্থ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী কোহিনুর আলম জানান, ফুলগাজী সদর ইউনিয়নের উত্তর দৌলতপুর ও বরইয়ায় দুটি অংশের বেড়িবাঁধে ভাঙনে পাঁচটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কিসিঞ্জার চাকমা মঙ্গলবার রাতে ও বুধবার সকালে ভাঙনকবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন

Print