জয়পুরহাটে দাদন ব্যবসায়ীর মারপিটে পিতা-পুত্র আহত

June 5, 2018 at 11:08 pm

জয়পুরহাট প্রতিনিধি:
দাদনের টাকা পরিশোধ না করায় জয়পুরহাটে বড় হেলকুন্ডা গ্রামের হতদরিদ্র ঋনি নূর মোহাম্মদ (৫২) ও তার ছেলে রাব্বী মন্ডলকে (২২) বেধরক মারপিট করে গুরুতর আহত করেছে একই গ্রামের দাদন ব্যবসায়ী জুয়েল হোসেন ও তার বাবা এরশাদ।

পরে নুর মোহাম্মদকে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করান। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

জানা গেছে, বড় হেলকুন্ডা গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে রাব্বী একই গ্রামের এরশাদুল ইসলামের ছেলে জুয়েল হোসেনের নিকট থেকে এক বছর আগে ৫ হাজার টাকা সুদের উপর হপকা (চক্র বৃদ্ধি সুদে) ঋন নেয়। কিছু দিন পর আসল ৫ হাজার পরিশোধ করেন ঋণি। অভাবের সংসারে সুদের ২ হাজার টাকা দিতে দেরি হওয়ায় রাব্বী ও তার বাবা নূর মোহাম্মদকে মাঝে মধ্যে গালিগালাজ ও হুমকি দিতেন দাদন ব্যবসায়ী জুয়েল হোসেন ও তার বাবা এরশাদ। এরই মধ্যে গত সোমবার রাতে হেলকুন্ডা গ্রামের কমিউনিটি ক্লিনিকের সামনে সুদের পাওনা টাকা না দেওয়ার কারণে দাদন ব্যবসায়ী ছেলে ও তার পিতা মিলে ঋনগ্রস্ত্য পিতা ও পুত্রকে বেধরক মারপিট করতে থাকেন। ওই ঘটনায় পিতা নুর মোহাম্মদ গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা উদ্ধার করে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করান।

ওই ঘটনায় ছেলে রাব্বী বাদী হয়ে জয়পুরহাট সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জয়পুরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম হোসেন বলেন, মামলা যখন হয়েছে, তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স/অ

Print