সোনার বাংলা বলতে যা বুঝেন রাজশাহীবাসী

December 16, 2017 at 9:33 am

শফিক আজম:

আজ মহান বিজয় দিবস। একাত্তরের নয় মাস রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর অর্জিত একটি স্বাধীন সার্বভৌম দিবস। জাতীয় বিজয়ের স্মৃতিটা পতাকার লাল কালিতে আঁকা। সেই সাথে বাংলার সবুজ শ্যামল বৈচিত্র এর মানকে আরও বাড়িয়ে দেয়। বাংলার রয়েছে নানা স্মৃতি, অনেক চিহ্ন, অনেক ডাক। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ বাংলার রুপে মুগ্ধ হয়েই জাতীয় সঙ্গীত রচনায় লিখেছিলেন, ‘আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালবাসি।’

বিজয়ের ৪৬ টি বছর গেল পার হয়ে। বিজয়ের সেই স্মৃতি বুকে নিয়ে আমরা আজও জাতীয় সঙ্গীতের সেই সুরটিকে অবধারণ করে চলেছি। এর অনুভূতি হয়ত বলে বোঝাবার নয়। যে দেশের মানুষ শুধুমাত্র দেশকে ভালবেসে অকাতরে প্রাণ দিয়ে গেছে, সে দেশের মানুষের কাছে দেশটা কতটা মূল্য রাখে তা বর্ণনাতীত।

বিজয়ের এই দিনটিকে সামনে রেখে সিল্কসিটি নিউজের পক্ষ থেকে রাজশাহীর বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিলো সোনার বাংলা মানে কি? নবীন, তরুণ শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবকসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের উত্তর হলো-‘সোনার বাংলা মানে অব্যক্তহীন ভালবাসা। সবুজ শ্যামল ঐশ্বর্যে ভরা একটি দেশ, যা পৃথিবীর কোথাও নেই। কারও কাছে এটি একটি মমতা। আবার কারো কাছে সমঅধিকার। কারও মতে সোনার বাংলা আশ্চর্যের বিষয়। আবার কেউ মনে করেন, স্বাধীনতার ৪৬ বছর পরে এসে এখনো সোনার বাংলাকে খুঁজে ফিরতে হচ্ছে।

অমীয় খান

চীনে অধ্যনরত ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বেইজিং বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র অমীয় খান বলেন, সোনার বাংলা আমাদের ইতিহাসের বাস্তবতা, বর্তমানের কার্যক্রম এবং ভবিষ্যতের স্বপ্ন। এটি আমাদের ঐতিহ্য, ভূবাস্তবতা এবং কাব্যিক পরিচয়। সোনার বাংলা বঙ্গবন্ধুর দেখা স্বপ্ন, জিয়ার ধানের শীষে কৃষকের হাসি। সোনার বাংলা মানে হলো, সবুজ শ্যামলে ঘেরা সবুজ এক অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ।

নিশাত ইয়াসমিন

রাজশাহী কলেজের ইংরেজী বিভাগের শিক্ষার্থী নিশাত ইয়াসমিনের মতে, সোনার বাংলা মানে হলো, এমন একটি দেশ যেখানে স্বশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে নিজেদের স্বাবলম্বী করে তোলা যায়। কাউকে ছোট করে না দেখে সকলের সমঅধিকার নিশ্চিত করা যায়। একটি পরিপূর্ণ মানসিক বিকাশ লাভ করা যায়।

কাউসার আহমেদ

একই বিভাগের কাউসার আহমেদ বলেন, চলাফেরার অধিকার নিশ্চিত করা। দেশের সকলেই এক হয়ে সকল সমস্যার মোকাবিলা করা। দেশের সকল নারী-পুরুষ সমান। থাকবে না কোন হত্যা গুম কিংবা ধর্ষণের মতো বিভৎস ঘটনা।

 

রিয়াসাত ইমতিয়াজ

 

রুয়েট শিক্ষার্থী রিয়াসাত ইমতিয়াজ বলেন, এখন এটি একটি দিবা স্বপ্ন। একটা বাংলাদেশ যেখানে কোনো ক্ষেত্রে কোন দুর্নীতি নাই। যেটার স্বপ্ন দেখে এই দেশ স্বাধীন করা হয়েছিল। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৬ বছর পরে এসে এখনো সোনার বাংলাকে খুঁজে ফিরতে হচ্ছে।

শেন রওনক আলী

রাজশাহী কলেজের ছাত্র রওনক আলীর মতে, যে অনুভূতিকে ধারণ করে গর্ব করা যায়-সেটিই হলো সোনার বাংলা।

 

আব্দুল গাফফার রুহিত

 

 

রাজশাহী কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী আব্দুল গাফফার রুহিত বলেন, সবার অধিকার নিশ্চিত করা। দেশের সুশাসন ফিরিয়ে আনা। একটি ক্ষুদামুক্ত বাংলাদেশ আর সুষ্ঠ মানের শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হলো সোনার বাংলা।

প্রিয়াংকা সরকার

ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী প্রিয়াংকা সরকারের মতে, সোনার বাংলা বলা যাবে তখনই, যখন দেশের নারী-পুরুষের সমঅধিকার প্রতিষ্ঠা হবে। বাসে উঠতে, রাস্তায় চলতে যেন ভয়ভীতি না থাকে।

 

নীরব হোসেন

নিরব হোসেন বলেন, যে দেশে মনুষ্যত্ব থাকবে, সমাজে থাকবে শৃঙ্খলা কিন্তু দুর্নীতি থাকবে না। সেটিই হবে সোনার বাংলা।

 

সৈয়দ আনোয়ার সাদাৎ

রাজশাহী শিরোইল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়েল শিক্ষক সৈয়দ আনোয়ার সাদাৎ বলেছিলেন, ধন-ধান্যে, প্রাকৃতিক সম্পদে ভরা বাংলার কল্পিত রুপ হলো সোনার বাংলা।

 

 

সেজান ইসলাম

সেজান ইসলাম বলেন, সোনার বাংলা হলো আমাদের দ্বিতীয় মা। যা আমাকে জন্ম দেয়নি। কিন্তু আমায় ভাষা দিয়েছে। পতাকা দিয়েছে। দিয়েছে স্বাধীনতা।

 

অটোরিকশা চালক আশরাফুল বলেছিলেন, আমার কাছে সোনার বাংলা মানে আমার পরিবারের হাসি, যা আমি তাদের দিতে পারিনি। যেদিন বাংলাদেশ থেকে বেকার শব্দটি হারিয়ে যাবে তখন বোঝা যাবে সোনার বাংলার আসল মানে।

আশরাফুল হোসেনের বাড়ি মোহনপুরে। ইন্টার পাশ করে অর্থের অভাবে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারেননি। চাকরি না পেয়ে কখনও অন্যের জমিতে কামলা খেটে আবার কখনও ভ্যান চালিয়ে পরিবার চালিয়েছেন।

রাজশাহী শহরে তিনি একটি অটো রিকশা চালান। আসেন মাঝে মাঝে। চাকরীর খোঁজে ঢাকায় গিয়ে পরিবারের কথা ভেবে ছুটে আসতে হয়েছে।

কথা হয় নির্মান শ্রমিক সেলিমের সাথে। তার মতে, দেশ গড়ছে যারা তারা ভালো বোঝে সোনার বাংলার মানে। আমরা তো বাড়ি ঘর বানাই। আমরা দেশকে ভালবাসি। যারা দেশ গড়ছে তারাও যেন দেশকে ভালবাসে। তবেই হবে সোনার বাংলা।

রেলগেট এলাকার এক ট্রাফিক পুলিশ বলেন, সোনার বাংলা মানে তো আর আমরা বলতে পারবো না। বড় স্যারদের কাছে গেলে তারাই ভাল বলতে পারবে। আমি এই বিষয়ে কিছু বলতে পারবো না।

কাশিয়াডাঙ্গা এলাকার রিকশা চালক সাত্তার বলেছিলেন, আমার কাছে সোনার বাংলা মানে তিন বেলার তৃপ্তির খাবার।

উপশহর এলাকার চা বিক্রেতা আবুল হোসেন বলেন , সোনার বাংলা আমার দেশ। আমরা দেশকে ভালবাসি। তবে শুধু গানে না মনে প্রাণে। আমরা মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, কিন্তু ভালবাসাটা এমন যে যুদ্ধ লাগলে দেশের জন্য মরতে পারব।

বিজয় মানেই যেন খুশি আর ভালো লাগার আলাদা এক অনুভুতির নাম। যে কোনো বিজয়েই মনের মাঝে অন্য রকম একটা খুশির ঢেউ দোলা দিয়ে যায়। তেমনি এক বিজয়ে এই জাতি হয়েছিল ধন্য। তবে যে কোন বিজয় অর্জনের পিছনেই থাকে অনেক কষ্টের ইতিহাস ঠিক তেমনি আমাদের দেশের বিজয় অর্জনের তিক্ত পূর্ণ ইতিহাসের কথা কারও অজানা নয়। অনেক রক্তের বিনিময়ে পাওয়া লাল সবুজের বিজয় মিছিলের সূচনা হয়েছিল আজকের এই দিনে। আজকের এই দিনে একটাই প্রত্যাশা নানা সংকটের অবসানের মধ্য দিয়েই এগিয়ে যাবে দেশ হবে সোনার বাংলা।

স/আর

Print