অবশেষে রহনপুর রেলস্টেশনের সেই বৃদ্ধা উদ্ধারে পুলিশের মহানুভবতা!

নিজস্ব প্রতিবেদক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ:

রহনপুর রেলস্টেশনে বৃদ্ধা মাকে ফেলে গেল পরিবার শিরোনামে বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টালে সংবাদ প্রকাশের পর মহিলার দায়িত্ব নিয়েছেন, রহনপুর তদন্ত কেন্দ্রের আইসি আব্দুল মালেক, এএসআই তৌহিদুল ইসলাম ও পুলিশের বিশেষ শাখার ডিএসবির নুরুন্নবী।

১৪ দিন ধরে শতবর্ষী বৃদ্ধ মহিলা খোলা আকাশের নিচে পড়ে আছে এমন সংবাদ জানার পর রোববার রাতেই উন্নত চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় অসহায় বৃদ্ধা মহিলাকে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাতেই ছুটে আসেন রহনপুর পৌর মেয়র তারিখ আহম্মদ। এ সময় তিনি বৃদ্ধার খোঁজ খবর নেন এবং বৃদ্ধ মহিলার পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। তিনি শতবর্ষী বৃদ্ধ মহিলাটিকে কম্বলও দিয়ে যান।

উল্লেখ্য, আমের রাজধানী খ্যাত চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুর রেল স্টেশনের ২ নম্বর প্লাটফর্মে প্রায় শতবর্ষী অজ্ঞাত এক বৃদ্ধ নারীকে ফেলে যায় পরিবারের লোকজন। প্রায় ১৪ দিন ধরে রহনপুর রেল স্টেশন চত্ত্বরের একটি তেঁতুল গাছের পাশে দিন কাটাচ্ছিলেন চরম কষ্টে। তীব্র শীতে সে কাঁপত প্রতিনিয়ত।

রোববার সকালে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়। শীতের তীব্রতায় সে ঠকঠক করে কাঁপছে। ঠান্ডায় সে কোন কথা বলতে পারছেনা ফলে তার পরিচয়ও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। শীত থেকে বাঁচতে বৃদ্ধা নারী খড়ের বিছানা করে শুয়ে আছেন। পরনে একাটি পুরোনো উলের সুয়েটার সাথে একটি কম্বল।

স্থানীয় এলাকার মানুষ জানায়, প্রায় ১৪ দিন আগে স্বজনরা তাকে ভ্যান গাড়ী যোগে প্লাটফর্মে ফেলে রেখে যায়। তারপর থেকে
কেউ তার কোন খোঁজ খবর নেয়নি। সিরাজুল নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি তার খোঁজ খবর নিয়েছেন।

স/অ

Print