আ’লীগ কর্মীদের চোখ উপড়ে ফেলার মামলায় বিএনপি কর্মীর জেল

September 11, 2019 at 10:29 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:

আওয়ালীগ কর্মীদের চোখ উপড়ে ফেলার মামলায় শাহীন নামে এক বিএনপি কর্মীর ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। আজ বুধবার দুপুরে রাজশাহীর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান তালুকদারের জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় প্রদান করেন। এসময় ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরো ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন তিনি।

এছাড়া মামলার অন্য আসামী ফারুক ও মানিককে ৬মাসের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০০ টাকা করে অর্থদণ্ড, অনাদায়ে ৭ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

আদালত সুত্রে জানা যায়, রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় ২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর দুপুরে বিএনপি- জামায়াতের হরতাল কর্মসূচির সময় আসামি শাহিনসহ বিএনপি- জামায়াত কর্মীরা আওয়ামীলীগ কে উদ্দেশ্য করে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করতে থাকে। এ সময় আওয়ামীলীগ কর্মী জেলার চারঘাট উপজেলার চক ঝিকড়া গ্রামের কুতুব আলীর ছেলে মিনারুল সেখানে পৌছালে আসামীরা তাকে ঘিরে ধরে ও মারপিট শুরু করে। এর মধ্যে আসামি শাহিন ধারালো রামদা দিয়ে মিনারুলের কপালে আঘাত করলে সে গুরতর আহত হয়। পরে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। কিন্তু গুরতর আঘাত লাগায় তার চোখ নস্ট হয়ে যায়। সেইদিনই ১৬জন আসামীর বিরুদ্ধে চারঘাট মডেল থানায় এজাহার দায়ের হয়। পরবর্তীতে এজাহার বর্নিত আসামীদের বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের ২৮ মে তারিখে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। 

সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ডাক্তার ও তদন্তকারী কর্মকর্তাসহ ১০জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহন শেষে এ রায় ঘোষনা করা হয়। এ সময় আসামীরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়।

রাস্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অতিরিক্ত সরকারি কৌশুলি আহসান হাবিব (রঞ্জু) এবং আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট হযরত আলী!

স/অ

Print