রামেকে জনসচেতনতামূলক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শিত

January 16, 2019 at 10:28 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ফ্লিম সোসাইটির আয়োজনে এন্টিবায়োটিক রেজিসট্যান্স এবং হেপাটাইটিস সি বিষয়ে জনসচেতনতামূলক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় ডা. কায়সার রহমান চৌধুরী মিলনায়তনে একটি আত্মহননের গল্প ও অরুণ প্রাতের তরুণ নামক চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়।

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র দুটির মূলভাবনার প্রযোজনা ও সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন, রামেক লিভার বিভাগের প্রধান ডা. হারুন আর রশিদ। রচনা ও পরিচালনায় ছিলেন রামেক ৫৪ তম এমবিবিএস শিক্ষার্থী ডা. নাহিদ হাসান। ফ্লিমটি জনসাধারণের মাঝে সচেতনার লক্ষের বৃদ্ধিতে নির্মাণ করা হয়েছে।

আয়োজকরা জানান, এই দুটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র দ্বারা হেপাটাইটিস সি ভাইরাস কি, কিভাবে ছড়ায় ও কিভাবে চিকিৎসা করা যায় ও প্রতিরোধ করা যায় সে বিষয়গুলো তুলে আনা হয়েছে। আয়োজকরা আরো জানায়, এই ভাইরাসকে আমরা সকল কিছুর মাধ্যমে চিকিৎসার আওতায় আনতে পারি। তাহলেই একটি মানুষ সুন্দরভাবে জীবন পরিচালনা করতে পারবে। আর চিকিৎসার না করলে সে মানুষটা তিলে তিলে শেষ হয়ে যাবে। সমাজের সকলের সচেতনতায় এটা দেখা দরকার তা অভিনয়ের মাধ্যমে দেখানো হয়েছে।

আরকেটি চলচ্চিত্র একটি আত্মহননের কাহিনী এটিতে এন্টিবায়েটিক রেজিস্ট্যান্স এর সকল বিষয়ে দেখানো হয়েছে। আমাদের দেশের জন্য খুবই দরকারি এই বিষয়টা। বর্তমান সময়ে এন্টিবায়েটিক যেভাবে গ্রহণ করা হচ্ছে এই গ্রহণটা কতটা সঠিক করা হচ্ছে তার ক্ষতিটা তুলে ধরা হচ্ছে। গ্রামের যে সকল হাতুড়ি ডাক্তাদের কাছে গিয়ে মানুষ চিকিৎসা নিচ্ছে যেভাবে এন্টিবায়েটিক ব্যবহার করছে সেটা সকলের জীবননাশের একটি কারণ। যে ওষুধ মানুষের জীবন রক্ষা করে সে ওষুধটা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুয়ায়ী না খেলে কতটা ক্ষতি হয় তা চলচ্চিত্রতে দেখানো হয়েছে।

স/অ

Print