গুহায় কিশোর ফুটবলারদের উদ্ধারে মারা যাওয়া থাই ডুবুরিকে বিশ্বজুড়ে স্মরণ

July 13, 2018 at 10:48 am

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

থাম লুয়াং গুহায় আটকেপড়া ১২ কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচকে উদ্ধার করতে গিয়ে জীবন উৎসর্গ করা থাই নৌবাহিনীর সাবেক ডুবুরিকে বিশ্বজুড়ে স্মরণ করা হচ্ছে। এদিকে এক থাই শিল্পী তার একটি ভাস্কর্য নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

ডুবুরির স্ত্রী বলেছেন, আমি তাকে ভীষণভাবে অনুভব করছি। তিনি বলেন, কিশোর ফুটবলারদের বলেছি- যাতে তার মৃত্যুর জন্য তারা নিজেদের দোষারোপ না করে।

উদ্ধারের পর কিশোরদের হাসপাতাল থেকে হাসিমাখা মুখে হাত নাড়িয়ে শুভেচ্ছা জানানোর একটি ভিডিও বুধবার প্রকাশ করা হয়েছে।

বালকদের উদ্ধারে বহুজাতিক অভিযানের একমাত্র হতাহতের শিকার ব্যক্তি হলেন থাইল্যান্ডের অভিজাত নেভি সিলের সাবেক সদস্য ৩৮ বছর বয়সী সামান কুনান।

তার স্ত্রী ভ্যালিপোন কুনান ইনস্টাগ্রামে স্বামীর সাদা-কালো একটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছেন- আমি তোমাকে খুবই ভালোবাসি।

তিনি বলেন, আমি তোমাকে খুবই অনুভব করছি। তোমাকে আমি এতটা ভালোবাসি যেন তুমি আমার হৃদয়। এখন থেকে যখনই আমি ঘুম থেকে উঠব, তখন কাকে কিস করব?

১৭ দিনের অভিযান শেষে সংবাদ সম্মেলনে উদ্ধার অভিযানের প্রধান বলেন, বিশ্ব সামানকে অবশ্যই স্মরণ করবে। তিনিই সত্যিকারের নায়ক।

এদিকে ভ্যালিপোনের সামাজিকমাধ্যমের অ্যাকাউন্টে শোক জানিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষ মন্তব্য করছেন।

তারা বলছেন, তোমার ও তোমার পরিবারের জন্য আমাদের সহানুভূতি ও ভালোবাসা রইল। কিশোরদের বাঁচাতে তিনি যা করেছেন, বিশ্ব অবশ্যই তা ভুলে যাবে না।

Print