ভর্তি জালিয়াতির অভিযোগে জাবি শিক্ষার্থী বহিষ্কার

January 18, 2018 at 11:06 am

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে মোফসেনা ত্বাকিয়া নামে এক শিক্ষার্থীকে জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তির সহযোগিতা করায় সাহেদ ইসলাম ওরফে আল-আমিনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

আল-আমিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ৪২তম আবর্তনের এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। তার গ্রামের বাড়ি নওগাঁ।

বুধবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিসিপ্লিন বোর্ডের মিটিংয়ের পর এক জরুরি সিন্ডিকেট বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান যুগান্তরকে জানান রেজিস্টার আবু বকর সিদ্দিক।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় জালিয়াতির আশ্রায় নিয়ে ভর্তি চেষ্টা, ভর্তি না করেও একটি মেয়েকে ক্লাস করার প্ররোচনা এবং মেয়েটির সঙ্গে পরিচয় গোপন করে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে আল-আমিন। এ কারণে তার নামে মামলা করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া অধিকতর তদন্তের জন্য অধ্যাপক রাশেদা আক্তারকে প্রধান করে চার সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে তিন সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। ত্বাকিয়াকে তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগে এক বছর ক্লাস করার পর বিভাগীয় সভাপতির সন্দেহের পরিপেক্ষিতে মঙ্গলবার প্রক্টর অফিসে জিজ্ঞাসাবাদে ত্বাকিয়ার জালিয়াতির বিষয়টি ধরা পড়ে

ত্বাকিয়া স্বীকারোক্তি দেয় যে, আল-আমিন তার কাছ থেকে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ভর্তি বাবদ ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা দাবি করে ও বিকাশের মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা নেয়। যুগান্তর

Print