নিজ কলেজের সমস্যা নিয়ে আ’লীগ নেতা লিটনের দ্বারে বিএনপি নেতা মিনুর স্ত্রী

January 3, 2018 at 11:43 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহী মাদার বক্স গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের অধ্যক্ষ তিনি। তিনি রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) সাবেক মেয়র ও মহানগর বিএনপির সাবেক সভাপতি বর্তমানে বিএনপির চেয়ার পার্সনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনুর স্ত্রীও। বিএনপি নেতার স্ত্রী হওয়ার কারণে সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইএম খায়রুজ্জামান লিটনের সঙ্গে এতোদিন স্বামী মিনুর মতো তারও ছিল দূরুত্ব।  কিন্তু সেই তিনি নিজ কলেজের সমস্যা সমাধানের জন্য বুধবার সকালে ছুটে যান আওয়ামী লীগ নেতা এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের দ্বারে।

লিটনও তার উদার হাত বাড়িয়ে বিএনপি নেতা মিনুর স্ত্রী সালমা রহমানকে দরজা খুলে দেয়ার ব্যবস্থা করেন। পরে নগরীর উপশহরস্থ লিটনের বাড়িতে প্রবেশ করে ড্রয়িং রুমে গিয়ে বসেন সালমা রহমানসহ তার সঙ্গে যাওয়া ওই কলেজের আরও কয়েকজন শিক্ষক।

লিটন ড্রয়িং রুমে বসে শোনেন সালমা রহমানের সমস্যার কথা। এসময় সালমা রহমান অধ্যক্ষ হিসেবে তুলে ধরেন রাজশাহী মাদার বক্স গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের নানা সমস্যার কথা।

শিক্ষকরাও লিটনের কাছে তাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন সমাধানের লক্ষে।

এসময় নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খারুজ্জামান লিটন তাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সমস্যর কথা শুনে-তা সমাধানের জন্য কাজ করার আশ্বাস দেন।

বিএনপি নেতা মিনুর স্ত্রী সালমা রহমানের সঙ্গে যাওয়া কয়েকজন শিক্ষক সিল্কসিটি নিউজকে বলেন, ‘রাজশাহীতে আওয়ামী লীগ-বিএনপির মধ্যে কখনোই বড় ধরনের কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার জন্ম না দিলেও প্রতিপক্ষ দুটি বড় রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতা হিসেবে মিনু-লিটনের মধ্যে কিছুটা হলেও মানসিক দ্বন্দ্ব রয়েছে। তারপরেও মিনুর স্ত্রী সালমা রহমান আওয়ামী লীগ নেতা লিটনের বাড়িতে গেলে তিনি সাদরে তাকে বাড়িতে প্রবেশের ব্যবস্থা করে দেন। বাড়িতে যাওয়ার পরে লিটনের ব্যবহার এবং আতিথিয়তাও মুগ্ধ হয়েছেন কলেজের শিক্ষকরা।

ওই শিক্ষকরা বলেন, লিটন উদার মনের মানুষ হিসেবেই মিনুর স্ত্রীকে তার বাসার ড্রয়িং রুমে বসিয়ে মাদার বখস কলেজের সমস্যার কথা শোনেন এবং সমস্যা সমাধানে তিনি সর্বাত্মক চেষ্টা চালানোর আশ্বাস ব্যক্ত করেন।

আওয়ামী লীগ নেতা লিটনের এমন আশ্বাসে মুগ্ধ হয়ে মিনুর স্ত্রীও শেষে তার বাড়ি থেকে বের হয়ে আসেন।

স/আর

Print