উচ্ছেদ অভিযানে আটক: রাসিক নগর ভবনের সামনে নির্মাণ শ্রমিকদের বিক্ষোভ

April 20, 2019 at 6:32 pm

নিজস্ব প্রতাবেদক:

রাজশাহীতে উচ্ছেদ অভিযানের সময় আটকের প্রতিবাদে নগর ভবনের সামনে বিক্ষোভ করছেন নির্মাণ শ্রমিক, বিল্ডিং পেন্টার শ্রমিক ইউনিয়ন, ইলেকট্রিশিয়ান সংগঠনসহ সাধারন শ্রমিকরা। শনিবার বিকেল ছয়টার দিকে নগর ভবনের সামনে তারা জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন।

এসময় আটককৃত শ্রমিকদের বিনাশর্তে দ্রুত সময়ে মধ্যে মুক্তি দেওয়ার দাবি জানিয়ে বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে থাকেন। এসময়ে রাস্তার উভয় পার্শে বিশাল যানজোটের সৃষ্টি হয়।

বিল্ডিং পেন্টার শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক রনি হোসেন রাহুল বলেন, আমরা রাজশাহী শহরকে সুন্দর ভাবে সাজানোর এ কর্মসূচিকে সাধুবাদ জানায়। কিন্তু অভিযানে প্রায় অর্ধ শতাধিক সাধারন শ্রমিককে আটক করে নিয়ে আসা হয়। তারা মালিক পক্ষের কেউ না তাদের কেন আটক করা হবে। আইনের আওতায় আনলে মালিক পক্ষকে আনতে হবে। যারা দিন এনে দিন খায় তাদের হয়রানি করার কি আছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা বিষয়টা মেয়র মহােদয়ের স্মরণে দিতে বিকালের পর অবস্থান নেয়। আর শ্রমিকদের হয়রানি করা হয়, তাহলে আমরা সব সংগঠন সব রকম কাজ বন্ধ করে দিব। এবং কঠোর অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে বলে হুশিয়ারি দেন।

বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমান উল্লাহ বলেন, অবস্থান নেয়ার সময় শ্রমিকদের বুঝিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন, ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি, জেলা ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি নবাব আলী, সহ-সভাপতি আজিজুল হক বাঙ্গালী, নাসির, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ন রেজা জেনু ও সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম হারুনসহ শত শত শ্রমিক।

এবিষয়ে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ম্যাজিষ্ট্রেট সমর কুমার পাল বলেন, কোন শ্রমিককে গ্রেফতার করা হয়নি। মালিকদের ধরার জন্যই শ্রমিকদের নাম মাত্র আটকিয়ে রাখা হয়। মালিকদের শেষ পর্যন্ত না পেলেও সকল শ্রমিকদের যেখান থেকে আটক করা হয় সেখানে নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

এর আগে, মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের চাচাতো ভাইয়ের বাড়ির নির্মাণ কাজ করার সময় সকাল ১১ টার দিকে কয়েকজন শ্রমিককে আটক করেন ভ্রাম্যমান আদালত।

পরে মেয়েরা চাচাতো ভাই সাইদুজ্জামান নিপুনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে ওই শ্রমিকদের ছেড়ে দেয়া হয়। এর প্রতিবাদে শ্রমিকরা বিকেলে এক জায়গায় জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মেয়র লিটনের চাচতো ভাই সাইদুজ্জামান নিপুন তার বাড়ি নির্মাণ কাজ করছেন রাস্তার উপরে নির্মাণ সামগ্রী রেখে। এ নিয়ে ওই স্থানে ফুটপাতে সাধারণ মানুষের চলাচলে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হচ্ছে।

এমন অভিযোগ পাওয়ার পর রাসিকের ভ্রাম্যমাণ আদালত সেখানে অভিযান চালায় এবং কয়েকজন নির্মাণ শ্রমিককে আটক করে। পরে বাড়ি মালিক নিপুনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে শ্রমিকদের ছেড়ে দেয়া হয়।

স/আর

Print