কোহলিকে চ্যালেঞ্জ বোল্টের

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে নিউজিল্যান্ড সফর শুরু করে ভারত। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণের লড়াইয়ে কিউইদের ৫-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করে তারা। তবে পরেই ধবলধোলাইয়ের তিক্ত স্বাদ পায় টিম ইন্ডিয়া। ওয়ানডে সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে পর্যদস্তু হয় তারা।

সামনে এবার টেস্ট মহারণ। দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের ঢাকে কাঠি ২১ ফেব্রুয়ারি। ওয়েলিংটনে ২২ গজে মাঠে নামার আগে বিরাট কোহলিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন ট্রেন্ট বোল্ট।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যাওয়ে টেস্ট সিরিজে হাতে চোট পান বোল্ট। ডান হাতের হাড়ে চিড় ধরে তার। যে কারণে ভারতের বিপক্ষে ওডিআই ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে পারেননি তিনি। এবার চোট সারিয়ে ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্টেই ফিরছেন নিউজিল্যান্ড পেস আক্রমণের কর্ণধার।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বক্সিং ডে টেস্টে সবশেষ মাঠে নামেন বোল্ট। এর পর ভারতের বিপক্ষে ওয়েলিংটন টেস্ট দিয়ে মাঠে ফিরতে চলেছেন তিনি। টেস্ট সিরিজের প্রথম বল গড়ানোর আগে বাঁহাতি অভিজ্ঞ পেসার বলেন, ব্যক্তিগতভাবে কোহলির উইকেট নেয়াই আমার লক্ষ্য। এ জন্য আমি ক্রিকেট খেলা উপভোগ করি। বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যানের উইকেট নেয়ার মধ্যে আলাদা আনন্দ আছে। এ জন্যই টেস্ট খেলা। নিজেকে সবসময় চ্যালেঞ্জের মুখে ছুড়ে দিতে ভালোবাসি।

৩০ বছর বয়সী গতিতারকা বলেন, সবাই জানেন বিরাট একজন গ্রেট ব্যাটসম্যান। তার বিরুদ্ধে বোলিং করা উপভোগ করব। ওর উইকেট পেতে মুখিয়ে আছি। হাত ভাঙার পর দীর্ঘদিন ক্রিকেটের বাইরে রয়েছি। স্বভাবতই মাঠে নামতে মরিয়া আমি।

সবশেষ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে বিরাটের বিরুদ্ধে হাত ঘোরান বোল্ট। সেই ম্যাচে ভারতীয় ব্যাটিং মায়েস্ত্রোকে ব্যক্তিগত ১ রানে এলবিডব্লিউ করেন তিনি। এ ছাড়া রবীন্দ্র জাদেজাকে আউট করেন কিউই পেস সেনসেশন। তার অনন্য বোলিং নৈপুণ্যে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতকে ১৮ রানে হারিয়ে ফাইনালের ছাড়পত্র নেয় নিউজিল্যান্ড।