ফাইনাল হারায় ভারতে টিভি ভাংচুর; পুলিশী অ্যাকশন

June 19, 2017 at 12:27 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক: গত ৪ জুন চ্যাম্পিয়নস ট্রফির গ্রুপ পর্বে যখন ভারতের কাছে বিশাল ব্যবধানে হেরেছিল পাকিস্তান; তখন তাদের দর্শকরা এমন ধ্বংসাত্মক উন্মাদনায় মেতেছিল। ভেঙেছিল টিভি।

সোশ্যাল সাইটে বেদম মার খাওয়া ওয়াহাব রিয়াজের ১৪ গোষ্ঠী উদ্ধার করছিল তারা। এমনকী কোচ মিকি আর্থারও বাদ পড়েননি উন্মাদ ভক্তদের রোষ থেকে! ঠিক ২ সপ্তাহ পর ঘটনাক্রমে দুই দল যখন আবারও মুখোমুখি হলো; পাল্টে গেল দাবার চাল!

হতাশ এক ভারতীয় সমর্থক মাথায় হাত দিয়ে বিলাপ করছেন।  ছবি: এএফপি

পরাক্রমশালী ভারতকে হারিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটের ৮ নম্বর দল জিতে নিল সেরা আট দলের টুর্নামেন্টের ট্রফি। যেনতেন হার নয়; ১৮০ রানের বিশাল পরাজয়! পাকিস্তানি বোলারদের সামনে ধসে পড়ল বিশ্বসেরা ব্যাটিং লাইনআপ। এরপরই ভারতে শুরু হয়ে গেল ভাংচুর। ক্রিকেটারদের বাসার সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হলো। তারপরও প্রকাশ্যে বিভিন্ন স্থানে চলতে লাগল ক্ষুব্ধ সমর্থকদের বিশৃঙ্খলা।

গুজরাটের আহমেদাবাদে ক্ষুব্ধ সমর্থকরা টিভি ভাংচুর করছে। ছবি: এএফপি

ক্রিকেট এবং রাজনৈতিক অঙ্গনে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে হারটা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেনি ভারতীয়রা। তেমনিভাবে পাকিস্তানিরাও ভারতের কাছে হার মেনে নিতে পারে না। রবিবার রাতেই গুজরাটের আহমেদাবাদে উন্মাদ সমর্থকরা টিভি ভাংচুর শুরু করে দিল। পরিস্থিতি সামলাতে এক পর্যায়ে পুলিশ চলে আসে। ভাংচুরকারীদের থেকে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির শিরোপা জেতায় পাকিস্তানে আনন্দ উল্লাস। ছবি: এএফপি

ভারত-পাকিস্তান ফাইনালের আগে একটি প্রতিবেদন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বেশ সাড়া ফেলেছিল; তা হলো- পাকিস্তানে ভাংচুর থেকে রক্ষা করতে খাঁচায় বন্দী করা হচ্ছে টিভি! এসব থেকেই ক্রিকেট নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের উন্মাদনা বোঝা যায়। সচেতন মহল অবশ্য বলছে, এই উন্মাদনা ক্রিকেট নিয়ে না হয়ে জাতীয় ইস্যুগুলোতে যদি হতো তাহলে সবার জন্যই ভালো হতো।

Print