মেয়াদোর্ত্তীন ‘ডাকপ্লে’ ভ্যাকসিন ব্যবহার: দুর্গাপুরে মারা গেছে ৩’শ হাঁস

দুর্গাপুর প্রতিনিধি:
দুর্গাপুর প্রাণি সম্পদ অফিসের মেয়াদোর্ত্তীন ‘ডাকপ্লে’ ভ্যাকসিন ব্যবহারে হান্নান নামের এক খামারির প্রায় ৩শ হাঁস মারা গেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন খামারি।আজ বুধবার উপজেলার সিংগা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

খামার মালিক হান্নান জানান, ২০১৯ সালের ৫ ডিসেম্বর দাতা উন্নয়ন সংস্থা ‘সচেতন’ এর অর্থনৈতিক সহায়তায় ৫শত৫০টি হাঁসের বাচ্চা নিয়ে খামার শুরু করি। হাঁসের খামারে প্রথম বাচ্চা নিয়ে উপজেলা প্রাণি সম্পদ কার্যালয়ে পরামর্শ চাই। প্রাণি সম্পদ কার্যালয়ের কর্মরত চিকিৎসক ‘ডাকপ্লে’ নামক হাঁসের মারাত্মক রোগের জন্য সরকারি ডাকপ্লে ভ্যাকসিন ব্যবহাসের পরামর্শ দেন। তার পরামর্শ মতে ২৫দিনের মাথায় আমি অফিস থেকে সরকার ভ্যাকসিন ক্রয় করে খামারে হাঁস গুলোতে ব্যবহার করি। ভ্যাকসিন ব্যবহারের পর থেকে থামারের হাঁস মারা যেতে থাকে। এসময় আমি প্রাণি সম্পদ অফিসের কর্মরত চিকিৎসকে জানাই। তিনি বলেন ডাকপ্লে ভ্যাকসিনটি হাঁসের হাড়ে লেগেছে। তাই দুএকটি হাঁস মারা যেতে পারে। তার কথামত আমি খামারের কার্যক্রম পরিচালনা করতে থাকি। এরমধ্যে হাঁসের বয়স ৪২দিন হলে ডাকপ্লের দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন ব্যবহার করি গত বুধবার। এ ভ্যাকসিন ব্যবহারের সাথে সাথে খামারের প্রায় ৩শত ৫০টি হাঁস মারা যায়। এতে মারা যাওয়া হাঁসের প্রায় দেড় লাখ টাকা ক্ষতি হয় বলে ধারনা করছি।

এদিকে উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল কাদের জানান,সরকারি ভ্যাকসিনের মেয়াদো উর্ত্তীন হওয়ার কোন সুযোগ নেই। তবে হাঁসের অন্য কোন রোগের কারনে মারা যেতে পারে। তবে আমরা যাচাই বাছাই করে দেখি খামারের হাঁস গুলো কি কারণে মারা গেছে।

স/অ

Print