‘দিলীপ ঘোষকে চিড়িয়াখানার খাঁচায় ভরে রাখা হবে’

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

পশ্চিমবঙ্গ শাখার বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষকে চিড়িয়াখানার খাঁচায় বন্দি করে রাখা হবে বলে মন্তব্য করেছেন একই রাজ্যের তৃণমূল নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারি।

রোববার এক জনসভায় বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ সভাপতির বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া এ কথা বলেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি।

আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি বলেন, ‘আসানসোল-দুর্গাপুরে কখনও ভালো চিড়িয়াখানা তৈরি হলে সেখানে কোনো এক ভালো খাঁচায় দিলীপ ঘোষকে আটকে রাখব। শিশুরা এসে তাকে দেখবে আর জানবে, এই সেই ব্যক্তি যিনি বাংলা সংস্কৃতিকে নিয়ে উল্টোপাল্টা কথা বলেছিল।’

উল্লেখ্য, ভারতে বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতাকারীদের ভারত বিরোধী বলে মন্তব্য করেছিলেন দেশটির পশ্চিমবঙ্গ শাখার বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

পশ্চিমবঙ্গে এক কোটি বাংলাদেশি মুসলিম বাস করে দাবি করে তিনি বলেছিলেন, এসব মুসলিমরাই সিএএ – এর বিরোধিতা করছে। এদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে।

এরপর তিনি সিএএ বিরোধীদের তীব্র কটাক্ষ করে বলেন, ‘যাদের বাবা-মায়ের ঠিক নেই, তারাই সিএএ বিরোধিতা করছেন।’

দিলীপ ঘোষের এমন বেফাঁস মন্তব্যে ক্ষুব্দ হন আসানসোলের মেয়র।

এরপরই তাকে উপযুক্ত পরিবেশ পেলে চিড়িয়াখানায় বন্দি করা হবে বলে মন্তব্য ছোড়েন তিনি।

সিএএ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্য করে যাচ্ছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এর আগে সিএএ বিরোধী বিক্ষোভে সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করার ঘটনায় ‘গুলি করার’ পরামর্শ দিয়ে ব্যাপক বিতর্ক সৃষ্টি করেন তিনি।

প্রসঙ্গত প্রসঙ্গত গত বছরের ডিসেম্বরে ভারতে নাগরিকত্ব আইন সংশোধনী পাসের পর দেশজুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। আইনটিকে বৈষম্যমূলক আখ্যা দিয়ে এটি বাতিলের দাবিতে রাস্তায় নামেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলন থামাতে জনতার ওপর চড়াও হয় সরকারের পেটোয়া বাহিনী। এতে বিচ্ছিন্নভাবে বিভিন্ন স্থানে বহু হতাহতের ঘটনা ঘটে।

এ ছাড়া নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনটির বিরোধিতায় বক্তব্য দিয়ে আসছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Print