সম্মেলন থেকে ফারুক চৌধুরীর সমর্থক ফেনসিডিলসহ আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনস্থলে ফেনসিডিলসহ এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। তার নাম হাসান কবির (৩৫)। জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার ডোমকুলি গ্রামে তার বাড়ি। বাবার নাম আবদুল আজিজ।

আটক হাসান কবির রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীর সমর্থক। আটকের সময় তিনি ফারুক চৌধুরীর সরবরাহ করা হলুদ রঙের টি-শার্ট পরে ছিলেন। টি-শার্টে ফারুক চৌধুরীর ছবিও আছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আটক হাসান কবির যুবলীগ কর্মী। তার বাবা আবদুল আজিজ তিনি গোদাগাড়ীর বাসুদেবপুর ইউনিয়ন পরিষদের আট নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য। হাসান নানারকম অপকর্মের সঙ্গে জড়িত।
রাজশাহীর বিভাগীয় মহিলা ক্রীড়া কমপ্লেক্স মাঠে রোববার সকাল থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন চলছে। এই মাঠে প্রবেশের প্রধান ফটকে পুলিশ তল্লাশি করে সবাইকে ভেতরে ঢোকাচ্ছে। তখনই ফেনসিডিলসহ ধরা পড়েন হাসান।

নগরীর রাজপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোস্তাক হোসেন তাকে আটক করেন। পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, তল্লাশির সময় হাসান কবিরের কোমরে এক বোতল ফেনসিডিল পাওয়া যায়। এ সময় তাকে আটক করে থানায় নেওয়া হয়। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীর বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ীদের ‘পৃষ্ঠপোষকতার’ অভিযোগ আছে। খোদ সরকারি একটি প্রতিবেদনে তার নাম উঠে এসেছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতিত্ব করছেন ওমর ফারুক চৌধুরী। এবারও তিনি সভাপতি প্রার্থী হচ্ছেন বলে নাম শোনা যাচ্ছিল। তবে গত শুক্রবার জেলা আওয়ামী লীগের এক সভায় তিনি বলেছেন, প্রার্থী হচ্ছেন না। কিন্তু দল চাইলে তিনি যে কোনো দায়িত্ব পালনে রাজি আছেন।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস সিল্কসিটিনিউজকে বলেন, ফেন্সিডিলসহ এক জনকে আটক করা হয়েছে।

 

স/আ

Print