বাঘায় লবণের দাম বৃদ্ধি করলে তাৎক্ষনিক আইনী ব্যবস্থা: ব্যবসায়ীকে জরিমানা

November 19, 2019 at 8:26 pm

আমানুল হক আমান, বাঘা:
রাজশাহীর বাঘায় লবণের দাম বৃদ্ধি করলে তাৎক্ষনিকভাবে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন উপজেলা প্রশাসন। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা আজ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৭টায় আড়ানী পৌর বাজারের জনগণের উদ্দেশে এ কথা বলেন। এ সময় তিনি বলেন, লবণের কোন সংকট নেই। অযথা আপনারা কেউ অপ্রয়োজনে বিভ্রান্ত হয়ে বেশি লবণ কিনবেন না। আর যাবা বিভ্রান্ত করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নিব।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) আলপনা ইয়াসমিন, বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম, আড়ানী পৌর আ.লীগের সভাপতি শহীদুজ্জামান শাহীদ প্রমুখ। এ বিষয়ে উপজেলার মনিগ্রাম বাজারের লবণ ব্যবসায়ী মকুল হোসেনকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে, লবণের দাম কেউ বেশি নিলে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আমল এমপির ফেসবুক টাইমলাইনে। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ফেসবুকে উল্লেখ করেন, ‘আসুন আমরা নিজেরা নিজেদের এলাকার দায়িত্ব নেই। আমি রাজশাহীতে সরবরাহকারী সকল লবণ কোম্পানির সাথে আলাপ করেছি তারা কেউই মূল্য বৃদ্ধি করেনি। আমরা গুজবে কান দিয়ে শুধু শুধু বেশী করে ক্রয় করে মজুদ করে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি না করি। আজ রাতের মধ্যেই এই গুজব সৃষ্ট সমস্যার সমাধান করতে হবে সকলের স্বার্থে।’

জানা যায়, পেঁয়াজের দাম নিম্মমূখী করতে সরকারিভাবে ইতোমধ্যে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। পেঁয়াজের বাজার যখন গরম ঠিক সেই মুহূর্তে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌর বাজারে মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) বিকেলে লাইন ধরে লবণ কিনতে দেখা গেছে। তবে খোলা লবণ ১৩ টাকার প্রতিকেজি ২০-২৫ টাকা নেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ সময় ব্যবসায়ীদের তাৎক্ষনিক সতর্ক করে দেয় উপজেলা প্রশাসন। উপজেলার বিভিন্ন খুচরা ও পাইকারী বাজারে ‘লবণ’র দাম বেড়েছে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এ গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান জানান উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে পেঁয়াজের দাম কিছুটা স্বাভাভিক হচ্ছে, ঠিক তখনই উপজেলার বাজারে ‘লবণ’ নিয়ে শুরু হয়েছে তেলেসমাতি। লবণের দাম বেড়েছে প্রচার করলে মুহুর্তের মধ্যে ভিড় জমে বিভিন্ন দোকানে। তবে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে বাজারে প্রচুর পরিমাণের লবণ মজুদ রয়েছে। দাম বাড়ার কোন কারণ নেই। গুজব ছড়িয়ে যারা বেশি দামে লবণ বিক্রি করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নিব বলে ঘোষণা দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার।
লবণের দাম বৃদ্ধির আতংক তুলে বেশি দামের লবণ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। বেশি দামে লবণ ক্রয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন আড়ানী মৎস্য সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুজিত কুমার হালদার।

আড়ানী পৌরসভার চকসিংগা গ্রামের ও আনসার ভিডিবির সদস্য সাগর আলী বলেন, একটি মহল পেঁয়াজের মতো লবণের দাম বাড়ার গুজব তুলেছে। এতে বাজারের দোকানের সব লবন কয়েক ঘন্টার মধ্যে বিক্রি হয়েছে। আমি দুই কেজি খোলা লবণ ৫০ টাকা দিয়ে কিনেছি।
আড়ানীর পৌর বাজারের লবণ ব্যবসায়ী আনছার আলী বলেন, লবনের দাম বৃদ্ধির গুজব আমাদের কাছেও এসেছে। আমরা বিভিন্ন এলাকায় যোগাযোগ করে এর কোন সত্যতা পাইনি। এছাড়া লবণ কোম্পানির সংশ্লিষ্টদের কাছে এ নিয়ে যোগাযোগ করা হলে তারা এটি গুজব বলে উড়িয়ে দেন। আগের দামে লবণ বিক্রি হচ্ছে। তবে দোকানে ভিড় দেখে আনছার আলী তড়িঘড়ি করে দোকান বন্ধ করে সটকে পড়েন।

আড়ানী বাজারের ব্যবসায়ী ফজল হোসেনে বলেন, আগামী সপ্তাহে দাম বৃদ্ধির পাবে এমন খবর ছড়িয়ে দিয়েছে কে বা কারা। এ খবরটি ছড়িয়ে পড়লে লোকজন লবণ কিনতে দোকানে ভিড় করেন। তবে আমরা প্যাকেট লবণে এমআরপি অনুযায়ী প্রতিকেজি ৩৫ টাকায় বিক্রি করছি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, উপজেলার কোথাও কোন ব্যবসায়ী বেশি দামে লবণ বিক্রি করছেন এমন তথ্য পেলে আইনী ব্যবস্থা নিব। লবণের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি সম্পূর্ণ গুজব। এ ধরণের গুজব ছড়িয়ে কেউ বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে উপজেলার মনিগ্রাম বাজারের লবণ ব্যবসায়ী মকুল হোসেনের ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

 

স/শা

Print