অপবাদ সইতে না পেরে তানোরে গৃহবধুর আত্মহত্যা

November 16, 2019 at 8:46 pm

তানোর প্রতিনিধি:

রাজশাহীর তানোরে স্বামীর বড়ভাই ও তার স্ত্রী শনিবার সকালে সুমিত্রা রানী (৩৩) নামের একগৃহবধুকে চরিত্রহীনার অপবাদ দেয়। সেই অপবাদ সইতে না পেরে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন দুই সন্তানের জননীর ওই গৃহবধূ। শনিবার দুপুরে তানোর পৌর সদরের তালন্দ হিন্দুপাড়া গ্রামে আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটেছে ।

নিহত গৃহবধু তানোর পৌর সদরের তালন্দ হিন্দুপাড়া গ্রামের শ্রী অখিলের স্ত্রী। তাঁর এমণ অকাল মৃত্যুতে পরিবারসহ প্রতিবেশিদের মাঝে দেখা দিয়েছে শোকের ছায়াও কৌতুহল। ঘটনার কয়েকঘণ্টা পর থানা পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে সন্ধ্যায় ময়না তদন্তের জন্য রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন (ওসি )।

জানা গেছে, দুপুরে সুমিত্রার বড় মিয়ে ঘরে প্রবেশ করে তার মাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে চিৎকার দেয়। এসময় প্রতিবেশিরা এসে সুমিত্রার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। পরে প্রতিবেশিরা থানা পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানা পুলিশ

এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানায়, উপজেলার তানোর পৌর সদরের তালন্দ হিন্দুপাড় গ্রামের সুমিত্রার স্বামী অখিল চন্দ্র দাসের বড়ভাই অনিল ও তার স্ত্রী প্রায় সময় সুমিত্রাকে চরিত্রহীনা বলে গালিগালাজ করতো। সুমিত্রার মৃত্যুর পর থেকে অখিল চন্দ্র দাসের বড়ভাই অনিল ও তার স্ত্রী পলাতক রয়েছে।

তানোর থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ তদন্ত (ওসি) রাকিবুল হাসান বলেন, এনিয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

স/অ

Print