আবরার হত্যা: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের বিক্ষোভে ছাত্রলীগের হামলা চালানোর অভিযোগ

October 9, 2019 at 4:26 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

বুয়েটের ছাত্র আবরার হত্যার প্রতিবাদে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বুধবার সকালে মিছিল বের করেছিল ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা। অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা তাদের উপর হামলা চালিয়েছে। এ হামলায় কয়েকজন আহত হয়েছে বলেও খবর পাওয়া যাচ্ছে।

ছাত্রলীগ হামলা চালানোর কথা অস্বীকার করছে। তবে তারা বলছে, মিছিলটি থেকে সরকার এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে ‘ক্যাম্পাসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা হচ্ছিল’ এবং এ কারণে তারা ছাত্রদলের নেতা-কর্মীকে সেখান থেকে বের করে দিয়েছে।

শাহরিয়ার হোসেন নামে একজন যিনি নিজেকে ছাত্রদলের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার কর্মী বলে পরিচয় দিচ্ছিলেন, তিনি বলেন, তারা আবরার হত্যার প্রতিবাদে সকালে মিছিল বের করলে তাদের উপর ছাত্রলীগের কর্মীরা রড ও পাইপ দিয়ে হামলা করে।

এতে তাদের ৬ জন আহত হয়। পুলিশও তাদের দুজনকে আটক করেছে বলে জানান তিনি।

মি. হোসেন বলছিলেন, তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ছাত্র।

যদিও ছাত্রলীগের একজন কর্মী এদের বহিরাগত বলে উল্লেখ করেন।

আতিক হাসান প্রিন্স নামে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একজন কর্মী বলছিলেন, “সকাল ১১টায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে তাদের একটা বিক্ষোভ সমাবেশ করার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই বহিরাগতরা ক্যাম্পাসে সরকারবিরোধী এবং প্রধানমন্ত্রীবিরোধী উস্কানিমূলক স্লোগান দিয়ে ক্যাম্পাসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করে। তখন আমরা তাদেরকে ক্যাম্পাস থেকে বের করে দেই।”

কারো আহত হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন তারা।

সরকার বিরোধী স্লোগান দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছে ছাত্রদল।

পুলিশ বলছে, দুপক্ষই আজ সেখানে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় লিপ্ত হয়েছিল।

দুজনকে আটক করার কথাও স্বীকার করছে পুলিশ। তবে তাদেরকে পরে ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন কোতোয়ালি থানা পুলিশের একজন কর্মকর্তা।

Print