রাজশাহীতে বিভাগীয় সমাবেশ: ফেসবুকে অপপ্রচারে তীব্র প্রতিবাদ মিনুর

September 30, 2019 at 9:24 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীতে বিএনপির মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে গতকাল রোববার। এ সমাবেশকে কেন্দ্র করে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা ও সাবেক রাসিক মেয়র মিজানুর রহমান মিনুর নাম ব্যবহার করে ফেসবুকে অপপ্রচার চালায় একটি মহল। সেখানে রাজশাহী মাদরাসা মাঠের পূর্ব পাশে অনুষ্ঠিত সমাবেশ স্থান বদলিয়ে নগরীর আমচত্বরে স্থান পরিবর্তন করা হয়েছিল বলে অপপ্রচার চালানো হয়। এছাড়া বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুকে নিয়েও অপপ্রচার চালানো হয়েছিল। এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন মিনু। এবিষয়ে সোমবার বিকালে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠায় রাজশাহী মহানগর বিএনপির দপ্তর সম্পাদক।

তিনি বলেন, তাঁর নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে কে বা কারা বিভ্রান্তিকর বক্তব্য প্রদান ও ছবি পোস্ট করছে। যা বিভ্রান্তিকর, মিথ্যা ও বানোয়াট। বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক উপমন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য লিখে ভুয়া আইডি ও পেজ থেকে পোস্ট দেওয়া হয়েছে। যা সম্পূর্ণ বানোয়াট এবং দলের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরীর উদ্দেশ্যে দলকে নিয়ে একটি কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্র করছে।

তিনি আরো বলেন, ষড়যন্ত্র বা মিথ্যাচার করে কোন লাভ হবে না। বিএনপি পূর্বেও একত্রিত ছিল। এখনও আছে। কোন ষড়যন্ত্রই কাজে আসবে না। রোববারের রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশ এর প্রমাণ। ফেসবুকে আমার নাম, সংগঠনের নাম ব্যবহার করে চলমান ফেসবুকে পেইড (paid post) পোস্টে গুজব অপ্রচার এর তীব্র নিন্দা জানাই। সেইসাথে এই ধরনের কর্মকান্ডের সাথে জড়িতে ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান মিনু।

মিজানুর রহমান মিনুর ফেসবুকে একটিমাত্র ফ্যান পেজ রয়েছে। যার ফলোয়ার সংখ্যা ৭০ হাজারের অধিক, এটা ব্যাতীত মিজানুর রহমান মিনুর অন্য কোন ফেসবুক পেজ, আইডি নেই।

তিনি বলেন, অন্য কোনো অনলাইন বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমার নামে কোন তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি, অপ্রচার, মানহানিকর, আইন পরিপন্থী পোস্ট ছড়ালে তার দায়ভার আমার থাকবে না। তিনি এ থেকে সাধারণ জনগণকে বিভ্রান্ত না হয়ে সচেতন থাকার জন্য আহ্বান জানান।

 

স/শা

Print