বাগাতিপাড়ায় পুলিশ সদস্যের স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার: ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত দাবি

September 21, 2019 at 8:44 pm

বাগাতিপাড়া প্রতিনিধি:
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় পুলিশ সদস্যের স্ত্রী সেই পিংকি বেগম ওরফে মুক্তির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত ও দ্রুত বিচার দাবিতে মানব বন্ধন করেছে ভূমিহীন সংগঠণ ও এলাকাবাসী। শনিবার সন্ধ্যার কিছু সময় পূর্বে উপজেলার বাজিতপুর স্কুল মোড়ের রাস্তায় তারা এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, নিহত পিংকির বাবা আবুল কালাম আজাদ, জামনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মাজেদুর রহমান, ভূমিহীন সমিতির ফাগুয়াড় দিয়াড় কমিটির সভাপতি মীরা বেগম, তরুণ সংগঠণের সভাপতি রাজিবুল ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পিংকি বেগমের মৃত্যু কোন আত্মহত্যা হতে পারে না। এটি একটি হত্যাকান্ড। ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত করে এ ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত বিচার দাবি করেন বক্তারা। এদিকে নিহত পিংকি বেগমের বাবা তার মেয়ে তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা দাবি করলেও পুলিশ তা সত্য নয় বলে দাবি করেছে।

এ ব্যাপারে বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম শেখ পিপিএম বলেন, পুলিশ সদস্যের স্ত্রী পিংকি বেগমের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের মাত্র ১৯ ঘন্টার মধ্যে সমস্ত আইনী প্রক্রিয়া সপন্ন করে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে তার স্বামী পুলিশ সদস্য মাসুম আলীকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা ছিল পিংকির বাবার এমন দাবিকে সত্য নয় বলে দাবি তার। তবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানান তিনি।

উল্ল্যেখ, গত মঙ্গলবার বিকালে বাগাতিপাড়া উপজেলার রহিমানপুর হেনার মোড় এলাকার স্বামীর বাড়ি থেকে পিংকি বেগমের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় মামলা হলে পরদিন তার স্বামী মাসুম আলীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। শুরু থেকেই পিংকির বাবা তার মেয়েকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে দাবি করে আসছে। অভিযুক্ত মাসুম আলী জয়পুরহাটের কালাই থানার গাড়ি চালক হিসেবে কর্মরত।

স/অ

Print