বাঘায় ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত জাহিদ’র বাঁচার আকুতি

September 21, 2019 at 6:18 pm

বাঘা প্রতিনিধি:
ফুটফুটে ৪ বছরের শিশু জাহিদ হাসান। ব্রেইন টিউমারে সাথে লড়াই করে চলেছে। বিভিন্ন স্থানে এক সপ্তাহ থেকে মাইকিং করেও তার পাশে কেউ দাঁড়ায়নি। ফলে তার ভ্যান চালক বাবা এমরান আলী দুস্তিন্তায় পড়েছে।

জাহিদ হাসান রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভার চকসিংগা গ্রামের হতদরিদ্র ভ্যান চালক একরাম হোসেনের ছেলে।

শিশু জাহিদ হাসান ঢাকার আগারগাঁ তালতলা নিউরোসাইন্স হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. জাহিদ হোসেনের অধীনে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অপারেশনসহ তার চিকিৎসার জন্য ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার প্রয়োজন। কিন্তু এ অর্থ ব্যয় করার সামর্থ্য তার পরিবারের নেই। কি করে ছেলেকে বাঁচাবে এ নিয়ে চরম শংকা আর উৎকণ্ঠায় আছেন জাহিদ হাসানের মা-বাবা। ফলে নিরুপায় হয়ে তারা প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের হৃদয়বান ও বিত্তবান মানুষের কাছে সাহায্যের প্রার্থনা করেছেন।

এ বিষয়ে জাহিদ হাসানের মা তারা বেগম জানান, শশুর আলী মুদ্দিনের মৃত্যুর পর আড়াই শতাংশ জমি পেয়েছি। এই জমির উপর দুটি টিনের ছাপরা ঘর তুলে কোন মতে বসবাস করি। স্বামী ভ্যান চালিয়ে যে আয় হয়, সে টাকা দিয়ে সংসার ও ৩ ছেলে এবং ২ মেয়ের লেখা পড়ার খরচ করতে পারছিনা। এখন ছোট ছেলে জাহিদ হাসানের ব্রেইন টিউমার হয়েছে। অভাবের সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরায়। এখন ছেলের চিকিৎসা করাবো কিভাবে?

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা-এমরান আলী, বিকাস নম্বর ০১৭৪৮-১১৭৩৭২।

স/অ

Print