নন্দীগ্রামে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী

September 19, 2019 at 4:46 pm

নন্দীগ্রাম প্রতিনিধি: বগুড়ার নন্দীগ্রামে পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহের অভিশাপ থেকে রক্ষা পেল ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী। বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বের) রাতে উপজেলার থালতা মাজগ্রাম ইউনিয়নের গুলিয়া গ্রামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীর (১২) বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

খবর পেয়ে কুমিড়া পন্ডিতপুকুর পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ আজিজুর রহমান মেয়ের বাড়িতে গিয়ে এ বিয়ে বন্ধ করে দেন। এসময় মেয়ের মা তার মেয়েকে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না মর্মে অঙ্গিকারনামা দেন।

কুমিড়া পন্ডিতপুকুর পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ আজিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে আমরা ওই মেয়ের বাড়ি গিয়ে উপস্থিত হই। আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বর ও মেয়ের বাবা পালিয়ে যায়। পরে মেয়ের মা তার মেয়েকে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না মর্মে অঙ্গিকারনামা দেন।

 

স/শা

Print