হাই-টেক পার্ক স্থাপনে প্রশিক্ষণ পাবে ৩০ হাজার

September 12, 2019 at 8:52 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

বাংলাদেশের হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের জেলা পর্যায়ে  হাই-টেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের আওতায় জাপানে প্রশিক্ষণে যাচ্ছে ৫০ জনের একটি দল।

প্রশিক্ষণ চলবে ৯০ দিন পর্যন্ত। জাপানের ফুজিৎসু রিসার্চ ইন্সটিটিউটে ডেটা সায়েন্স, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স, মেশিন লার্নিং, ইন্টারনেট অব থিংস, রবোটিক্স, ব্লক চেইন এবং সাইবার সিকিউরিটি বিষয়ে এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে এ উপলক্ষে এক শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। এ অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণার্থীদেরকে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির কোনো বিকল্প নাই। নির্বাচনী ইশতেহারের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বিভিন্ন প্রকল্প ও কর্মসূচির মাধ্যমে আমরা দেশের তৃণমূল পর্যায়ে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম ছড়িয়ে দিতে চাই। এই লক্ষ্যের অংশ হিসেবে জেলা পর্যায়ে আইটি/ হাই-টেক পার্ক স্থাপন (১২টি জেলায়) প্রকল্পের আওতায় ৩০ হাজার তরুণ-তরুণীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। প্রথম পর্যায়ে আমরা বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর মাধ্যমে ৩৪১১ জন গ্রাজুয়েট এর মধ্য থেকে ২০০ জনকে নির্বাচন করেছি। মেধাক্রম অনুসারে প্রথম ৫০ জন জাপান যাচ্ছে। আমি আশা করি এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আমরা দক্ষ আইটি কর্মী পাবো।

মতবিনিময় অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম এনডিসি বলেন, আমরা ইতোমধ্যে ১১ হাজার এর অধিক জনের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম সম্পন্ন করেছি। বর্তমানে আরো প্রায় ৩১০০ জনের প্রশিক্ষণ চলমান রয়েছে এবং আরও ৪৫ হাজার জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিভিন্ন আইটি কোম্পানীতে প্রায় ৪৪৭৬ জনের কর্মসংস্থান হয়েছে। আমি বিশ্বাস করি এই প্রশিক্ষণ শেষে তোমরাও দেশের জন্য ভালো কিছু করতে পারবে।

Print