ভারতের বিরুদ্ধে ‘আকস্মিক যুদ্ধের’ আশঙ্কা দেখছে পাকিস্তান

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

অধিকৃত কাশ্মীরের পরিস্থিতি এক আকস্মিক যুদ্ধ উসকে দেয়ার ঝুঁকি তৈরি করেছে বলে হুশিয়ারি ব্যক্ত করেছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরাইশি।

বিরোধপূর্ণ অঞ্চলটিতে সফরে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান মিশেল ব্যাসেলেটকে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

বুধবার জেনেভায় জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের বৈঠকের ফাঁকে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি মনে করেন- ভারত-পাকিস্তন দুই দেশই সংঘাতের পরিণতি বুঝতে পেরেছে।

গত মাসে কাশ্মীরের সাংবিধানিক বিশেষ স্বায়ত্তশাসনের মর্যাদা কেড়ে নেয়ার ঘোষণা দেয় ভারতের হিন্দুত্ববাদী নরেন্দ্র মোদি সরকার। এরপর পরমাণু শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েই চলছে।

কুরাইশি বলেন, একটি আকস্মিক যুদ্ধের আশঙ্কা আপনি বাদ দিতে পারেন না। যদি পরিস্থিতি এভাবে চলতে থাকে, তবে যে কোনো কিছু ঘটতে পারে।

বিক্ষোভ ও অস্থিতিশীলতা কমাতে গত ৫ আগস্ট থেকে অধিকৃত কাশ্মীরে দমনপীড়ন বাড়িয়ে দিয়েছে ভারত সরকার। কিছু এলাকা বাদে অধিকাংশ উপত্যকায় মোবাইল ও ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে একটি আন্তর্জাতিক তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন কুরাইশি। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ব্যাসেলেটের সঙ্গে কথা বলে তাকে ভারত-পাকিস্তানের নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ভ্রমণের আহ্বান জানিয়েছেন।

‘তার উচিত, উভয় কাশ্মীরে সফর করে বস্তুনিষ্ঠভাবে প্রতিবেদন দেয়া। যাতে বিশ্ববাসী উপত্যকাটির সত্যিকার পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে পারেন।’

কাশ্মীর সফরে ব্যাসেলেট আগ্রহী বলেও জানিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তবে এ সময় দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের সম্ভাবনাও নাকচ করে দিয়েছেন তিনি।

Print