বাঘায় জননী ক্লিনিকের কেয়ারটেকারকে কুপিয়ে জখম

বাঘা প্রতিনিধি:
রাজশাহীর বাঘায় জননী ক্লিনিকের কেয়ারটেকার সবুজ আলীকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে জখম করা হয়। সবুজ আলী উত্তর মিলিকবাঘা গ্রামের মকবুল সরদারের ছেলে।

জানা যায়, শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার সময় কর্মস্থল বাঘা জননী ক্লিনিকে যাওয়ার উদ্দেশ্য বাড়ি থেকে বের হয়। পথিমধ্যে অতর্কিতভাবে একই এলাকার বাদশা হোসেন ও রাজা হোসেন ধারালো হাসুয়া দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে শরীরের বিভিন্নস্থানে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় সবুজ আলীর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে তাকে ফেলে চলে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় সবুজ আলীর ভাই মনিরুল ইসলাম বাদি হয়ে বাঘা থানায় একটি অভিযোগ করেন। তবে এ ঘটনার সাথে জড়িত ছিলোনা বলে দাবি করেন বাদশা হোসেন।

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য একজন সহকারি উপ-পরিদর্শককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print