বগুড়ায় নদীতে ডুবে বাবা-মেয়েসহ তিনজনের মৃত্যু

August 29, 2019 at 7:55 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক: বগুড়ার শেরপুর উপজেলার চণ্ডিজান গ্রামে করতোয়া নদীতে ডুবে মেয়ে ও ভাতিজাসহ এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বিকালে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নদী থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করেছেন। এর আগে দুপুরে মাছ ধরতে গিয়ে ডুবে যান তারা। শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ন কবির এসব তথ্য জানান।

নিহতরা হলেন—শেরপুর উপজেলার চণ্ডিজান গ্রামের গজেন্দ্রনাথ দাসের ছেলে সাউদিয়া পার্কের গার্ড চন্দন কুমার দাস (৩৬), তার মেয়ে কিরণ মালা (৫) ও ভাই উজ্জ্বল কুমার দাসের ছেলে অরূপ কুমার দাস (৭)।

শেরপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার রতন হোসেন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে চন্দন কুমার তার মেয়ে কিরণ মালা ও ভাতিজা অরূপ কুমার দাসকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ির কাছে করতোয়া নদীতে মাছ ধরতে যান। বেলা দেড়টার দিকে চন্দন দুই শিশুকে কোলে নিয়ে সাঁতরিয়ে নদী পার হচ্ছিলেন। মাঝ নদীতে মেয়ে হাত ফসকে ডুবে যায়। তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে কোলে থাকা ভাতিজাসহ চন্দনও ডুবে যান। খবর পেয়ে প্রথমে গ্রামের লোকজন নদীতে নেমে খোঁজাখুঁজি করেন। তারা ব্যর্থ হলে পরে শেরপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রথমে বাবা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করেন। পরে অরূপের লাশ পাওয়া যায়। তাদের মৃত্যুতে পুরো গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Print