বগুড়ায় যমুনা নদীতে ডুবে যাওয়া দু’ভাইয়ের মধ্যে একজনের মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় যমুনা নদীতে ডুবে নিখোঁজ হওয়া স্কুলছাত্র দু’ভাইয়ের মধ্যে একজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ডুবুরিদল। আজ শনিবার ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তার নাম ওমর আলী (১৫)। এদিকে আরেক ভাই জাহিদ হাসানের (১২) এখনো খোঁজ মেলেনি। তবে রাজশাহী থেকে আসা ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল তার সন্ধানে যমুনায় অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

নিহত ওমরের চাচা মনিরুজ্জামান বলেন, গত শুক্রবার যমুনা নদীতে তার ভাতিজাসহ ১১জন বেড়াতে গিয়েছিলেন। বেড়াতে গিয়ে তার দুই ভাতিজাকে নিয়ে ওমরের পিতা যমুনা নদীর পাকুরিয়া চরে সাঁতার শিখাচ্ছিলেন। এসময় শিশু দুইটি পানিতে ডুবে যায়। অনেক খোজাখুজি করে তাদের সন্ধান না পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স রাজশাহী সদর দপ্তরে খবর দেন।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স রাজশাহী সদর দপ্তরের স্টেশন অফিসার একেএম লতিফুল বারীর নেতৃত্বে ডুবুরী রাজ্জাক ও রিপন সকাল ১১টার সময় ওমরকে উদ্ধার করে। ওমরের নিখোঁজ ভাই এর সন্ধানে এখনো উদ্ধার কাজ চলছে।

অভিযানে উপস্থিত ছিলেন সারিয়াকান্দি ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আল-আমিন।

স/অ

Print