চারঘাটে ছাত্রলীগের সম্পাদক ও সহ-সভাপতির কথা কাটাকটি: দেশীয় অস্ত্রের মহড়া

August 3, 2019 at 9:31 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বিপ্লব দেশীয় অস্ত্রসহ শতাধিক লোকজন নিয়ে ব্যাপক মহড়া দিয়েছেন। আজ শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।

জানা যায়,গত ০২ আগষ্ট(শুক্রবার) রাতে চারঘাট বাজারের চায়না ম্যানশনের নিচে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক রায়হানুল হক রানার সাথে উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রনির কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে রনি নিজেকে ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়ার লোক দাবী করে নিজের ক্ষমতা প্রদর্শনের হুমকি প্রদান করেন।

এদিকে, আজ শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বিপ্লবের নেতৃত্বে দেশীয় অস্ত্রসহ প্রায় শতাধিক লোকজন চারঘাট সুইস গেটের উত্তর পাশে জড়ো হতে থাকে। কিছু সময় পর দেশীয় অস্ত্রসহ শোডাউনটি চারঘাট বাজারের দিকে আসতে থাকে।

এসময় অস্ত্রসহ এত লোকজনের মহড়া দেখে বাজারের লোকজন এদিক সেদিক ছোটাছুটি শুরু করে। ঘটনাস্থলে কয়েকজন পুলিশ সদস্য পৌছালে শোডাউন থেকে পুলিশকে উদ্দেশ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ শুরু হয় এবং তারা পুলিশকে ধাওয়া করে।

পরবর্তীতে আরো অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছালে শোডাউনটি ছত্রভঙ্গ হয়ে দিক বেদিক পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ কয়েকজন কে আটক করেন।

এ বিষয়ে চারঘাট উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক রায়হানুল হক রানা বলেন, পূর্ব কোনো শত্রুতা ছাড়া শুধু মাত্র কথা কাটাকাটির জের ধরে এভাবে দেশীয় অস্ত্র হাতে শোডাউন দিয়ে আমার ছাত্রলীগের ভাইদের উপরে হামলা করা হয়েছে। তাদের হামলায় হিমেল, রোকন, আল-মামুন নামে তিনজনসহ সর্বোমোট চারজন ছাত্রলীগে সদস্য আহত হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে চারঘাট উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বিপ্লব বলেন, দেশীয় অস্ত্রসহ কোনো মহড়া হয়নি। সুইস গেটে দু গ্রুপের ঝামেলা হলে আমি নিজে একজন জনপ্রতিনিধি হিসাবে সেখানে মিমাংসা করে দিতে গিয়েছিলাম। সেখানে আমার ছেলেদের উপরে অন্য গ্রুপের ছেলেরা হামলা চালায়। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবী করেছেন।

চারঘাট মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম বলেন, দেশীয় অস্ত্রসহ শোডাউনের মত একটা ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। ঘটনাস্থল থেকে চাঁপাতি, হাসুয়াসহ বেশ কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। উক্ত ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করার প্রস্তুতি চলছে।

Print