পাবনায় ভ্যান কেড়ে নেয়ায় চালকের আত্মহত্যা

July 17, 2019 at 9:39 pm

পাবনা প্রতিনিধি:

পাবনার সুজানগরে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দিতে না পারায় এক দরিদ্র অটো ভ্যান চালকের ভ্যান কেড়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভ্যান চালক ক্ষোভে আত্বহত্যা করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধায় সুজানগর উপজেলার তাঁতিবন্দ ইউনিয়নে মধুপুর গ্রামে এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে।

নিহতের স্ত্রী আছিয়া খাতুন বলেন, তিনি সুজানগর উপজেলার চেয়ারম্যান শাহিনুজ্জামান শাহিনের কাছে বার বার গিয়েও কোন প্রতিকার পাননি।

পুলিশ ও স্থানীয় চেয়ারম্যান জানায়, তাঁতিবন্দ ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামের হোসেন সরদার নামে এক দরিদ্র অটো ভ্যান চালক এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে একটি ভ্যান গাড়ি ক্রয় করে। গত ১৪ জুলাই সুজানগর পৌর এলাকার শীর্ষ তুফান ও তার সহযোগিরা ভ্যান চালক হোসেন সরদারের কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে না পারায় তারা তার ভ্যান কেড়ে নেয়।

গত কয়েকদিন ভ্যান চালক হোসেন বিভিন্ন যায়গায় বিচার চেয়ে এবং প্রতিকার না পেয়ে ক্ষোভে অভিমানে গতকাল সন্ধায় বিষাক্ত গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্বহত্যা করেন। ঘটনা পরিবারের সদস্যরা টের পেয়ে দ্রুত হোসেনকে উদ্ধার করে সুজানগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। অবস্থার আরো অবনতি হলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাত ১২টায় হোসেনের মৃত্যু হয়।

হোসেন তাতিবন্দ ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামের মৃত সেলাই সরদারের ছেলে। সন্ত্রাসী তুফান সুজানগর পৌর কালিপাড়া গ্রামের মাসুদের ছেলে।

সুজানগর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

স/অ

Print