সাপাহারে লাগাতার লোডশেডিং, জনদুর্ভোগ চরমে

July 10, 2019 at 5:07 pm

সাপাহার প্রতিনিধি: দীর্ঘদিন ধরে নওগাঁর সাপাহারে পল্লী বিদ্যুতের ঘন ঘন লোডশেডিং এর কারণে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। লাগামগীন এই লোডশেডিং-এর কবলে পড়ে অনেকের ল্যাপটপ-কম্পিউটার, ফ্রিজ, এসি, টিভিসহ যাবতীয় ইলেকট্রোনিক্স যন্ত্রপাতি নষ্ট হচ্ছে।

সাপাহার উপজেলা সদরে অবস্থিত মার্কেনটাইল ব্যাংকের ব্যবস্থাপক মাহবুুবুর রহমান জানিয়েছেন, চলতি লোডশেডিংয়ের কারণে তাদের ব্যাংকের কয়েকটি কম্পিউটার ও এসির পাওয়ার কয়েল ও সার্কিট পুড়ে নষ্ট হয়েছে। এছাড়া উপজেলার কোচকুড়লিয়া গ্রামের মনোয়ারুল হোসেন জানান, ঘন ঘন লোড শেডিং-এ তারও একটি ফ্রিজের কয়েল পুড়ে ফ্রিজে সংরক্ষিত মাছ, মাংস নষ্ট হয়ে যায়। বেশকিছু দিন ধরে তাদের গ্রামে কোন ব্যক্তি একটি মোবাইল ফোনও ঠিক মত চার্জ দিতে পারছেন না। প্রায় ২ মাস থেকে দিনে ও রাতে গড়ে প্রায় শতাধিকবার বিদ্যুত আসা-যাওয়া করছে। এতে করে বিভিন্ন অফিস, দোকানপাট, বাসাবাড়ীসহ সর্বত্রই কাজে চরম ব্যাঘাত ঘটছে। ভ্যাপসা গরমে লেখাপড়ায় কোমলমতি শিক্ষর্থীরাও পড়ছে চরম বেকায়দায়।

এবিষয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তি, অফিসারসহ সকল স্তরের লোকজন সাপাহার বিদ্যুত কর্তৃপক্ষকে বার বার অভিযোগ করেও কোন প্রকার কাজ হয়নি। বরং বিদ্যুত আসা-যাওয়ার মাত্রা অনেকাংশে বেড়েছে। প্রতিদিন গড়ে কোন গ্রাহক ৫/৬ঘন্টা বিদ্যুত ব্যাবহার করতে না পেরেও মাসের শেষে একগাদা বিল আসছে তাদের নামে।

এবিষয়ে নওগাঁ পল্লী বিদ্যুত সমিতি-২ এর সাপাহার অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডিজিএম তাজুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি জানান, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এমন হচ্ছে। সাপাহার উপজেলা সদর হতে পার্শ্ববর্তী পত্নীতলা উপজেলার নিরমইল ইউনিয়নে বিদ্যুত সংযোগ দেয়ার কারণে মূলত এই সমস্যাটি তৈরী হয়েছে। গ্রামাঞ্চলে বিভিন্ন গাছের ডালে বিদ্যুতের তারের সংযোগ ঘটার কারণে অটো সুইজগুলো হরহামেশা পড়ে যাচ্ছে। আর তখনই বিভ্রাট ঘটছে বিদ্যুতের। সাপাহার হতে আলাদা লাইন বের করে পত্নীতলার নিরমইল ইউনিয়নে পৃথক সংযোগের মাধ্যমে অচিরেই এ সমস্যার সমাধান করা হবে বলেও তিনি সাপাহারবাসীকে আশ্বস্ত করেছেন।

স/শা

Print