কুড়িগ্রামে উদ্ধার হওয়া বনরুইটি এল রাজশাহীতে

May 26, 2019 at 10:52 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

গত ২৩ মে কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরে পাচারকারীদের হাত থেকে উদ্ধার হওয়া বনরুইটি আনা হয়েছে রাজশাহীতে। গতকাল শনিবার এটি রাজশাহী বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হলে রাজশাহীতে বন বিভাগের বন্য প্রাণী উদ্ধার ও সংরক্ষণ কেন্দ্রে আজ রোববার এ বনরুই আনা হয়। যা বাংলাদেশের বিলুপ্ত প্রাণীদের একটি।

রাজশাহী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান জানান, বাংলাদেশের সিলেট ও শ্রীমঙ্গলে কখনো কখনো এদের দেখা পাওয়া যায়। আসলে এরা বাংলাদেশে বিলুপ্ত প্রায়। এরা শরীরে আঁশযুক্ত স্তন্যপায়ী প্রাণী। বনরুই থেকে ওষুধ তৈরি হয় এবং এর চামড়া দিয়ে দামি জিনিস তৈরি হয় বলে এদের পাচার করার একটা প্রবণতা রয়েছে।

বন বিভাগ সূত্র জানায়, ২৩ মে পাচারকারীদের হাত থেকে পুলিশ এটি উদ্ধার করে রংপুর বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করে। সেখান থেকে গতকাল শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে রাজশাহীতে আনা হয়।

জিল্লুর রহমান বলেন, এরা রাতের বেলায় বাইরে বের হয়। পিঁপড়া ও পিঁপড়াজাতীয় প্রাণী এদের প্রধান খাদ্য। রাজশাহীতে আনার পর একে সেই জাতীয় খাবার সরবরাহ করা হচ্ছে। তা ছাড়া বিকল্প খাদ্য হিসেবে এরা সেদ্ধ ডিম ও গুঁড়া দুধ খায়। এই খাবারও প্রাণীটিকে দেওয়া হয়েছে। সে তা খেয়েছে। তিনি বলেন, আরও আট-দশ দিন তারা প্রাণীটিকে পর্যবেক্ষণ করবেন। তারপর সম্পূর্ণ ছেড়ে দেওয়ার মতো সুস্থ হলে এটাকে শ্রীমঙ্গলের প্রাকৃতিক পরিবেশে ছেড়ে দেওয়া হবে।

আজ রোববার দুপুরে গিয়ে দেখা যায়, সংরক্ষণ কেন্দ্রে বনরুইটি গুটিসুটি মেরে শুয়ে রয়েছে। বন বিভাগের একজন কর্মী এটিকে জাগিয়ে তোলেন, তখনো এটি চোখ বন্ধ করে ছিল।

Print