‘হারাম আল শরিফ’ বলায় প্রচন্ড ক্ষুব্ধ ইসরায়েল

October 14, 2016 at 10:28 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

যে পবিত্র ধর্মীয় স্থানটি নিয়ে মুসলিমদের সঙ্গে ইহুদীদের শত শত বছর ধরে বিরোধ, তা নিয়ে এক নতুন বিতর্কে ইসরায়েল ইউনেস্কোর সঙ্গে তাদের সহযোগিতা স্থগিত ঘোষণা করেছে।

 

ইসরায়েল অভিযোগ করছে, ইউনেস্কোর এক সাম্প্রতিক প্রস্তাবে এই পবিত্র স্থানের সঙ্গে ইহুদীদের সম্পর্ককে অস্বীকার করা হয়েছে।

 

ইউনেস্কোর এই প্রস্তাবে জেরুসালেমের পবিত্র এই স্থানকে কেবল ‘হারাম আল শরিফ’ বলে উল্লেখ করা হয়, যা মুসলিমদের কাছে এ নামেই পরিচিত। ইহুদীরা এই স্থানকে বর্ণনা করে ‘টেম্পল মাউন্ট’ বলে।

 

ইউনেস্কোতে এই প্রস্তাবটি তুলেছিল সাতটি আরব রাষ্ট্র। এতে তারা জেরুসালেম এবং অধিকৃত পশ্চিম তীরের আরও কয়েকটি পবিত্র জায়গায় ইসরায়েলের সাম্প্রতিক তৎপরতার নিন্দা করে।

 

যদিও প্রস্তাবে পুরাতন জেরুসালেমের এই জায়গার সঙ্গে বিশ্বের তিনি প্রধান একেশ্বরবাদী ধর্মের সম্পর্কের গুরুত্ব স্বীকার করা হয়, এতে পাহাড় চূড়াটিকে কেবল আল আকসা মসজিদ/হারাম আল শরিফ বলে বর্ণনা করা হয়েছিল।

 

মুসলিমদের বিশ্বাস, হারাম আল শরিফ থেকেই নবী মুহাম্মদ বেহেশতে গিয়েছিলেন। ইসলামে এটি তৃতীয় পবিত্রতম স্থান বলে বিবেচিত।

 

অন্যদিকে ইহুদীদের বিশ্বাস এখানেই দুটি অত্যন্ত প্রাচীন ইহুদী মন্দিরের অবস্থান।

_78668853_temple_mount_624

ইউনোস্কোর এই প্রস্তাবে ফিলিস্তিনিদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য এবং পূর্ব জেরুসালেমের আদি বৈশিষ্ট্য ধরে রাখার কথা বলা হয়।

 

এটিতে ইসরায়েলের কার্যক্রমের তীব্র নিন্দা করে বলা হয়, ইসরায়েল সেখানে বল প্রয়োগ করছে, মুসলিমদের প্রবেশে বাধা দিচ্ছে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

Print