সংবাদ প্রকাশের জেরে দুর্গাপুরে সাংবাদিক মিজানকে প্রাণনাশের হুমকি

March 1, 2019 at 9:32 pm

দুর্গাপুর প্রতিনিধি:

দুর্গাপুরে সংবাদ প্রকাশের জেরধরে সাংবাদিক এমআর মিজানকে প্রকাশ্য প্রাণ নাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে পেশাগত দায়িত্ব পালনে দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রবেশ করার সময় এ ঘটনা ঘটে।

সাংবাদিক এমআর মিজান দুর্গাপুর মডেল প্রেসক্লাবের সভাপতি ও স্থানীয় দৈনিক সোনালী সংবাদ ও জাতীয় দৈনিক খোলাকাগজ ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল সাহেববাজার নিউজ টুয়েন্টিফর ডটকমের উপজেলা প্রতিনিধি।

ওই ঘটনায় শুক্রবার সন্ধ্যায় দুর্গাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে সাংবাদিক এমআর মিজান সংবাদ সংগ্রহের কাজে দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভিতরে যাচ্ছিলেন। এ সময় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে অবৈধভাবে গড়ে উঠা মাইক্রাবাস স্ট্যান্ড মালিক সমিতির সভাপতি নাজির উদ্দিন তার পথরোধ করেন। এ সময় তার সাথে থাকা বখাটে ড্রাইভার ও হেলপাররা ছুটে আসেন। এবং সাংবাদিক মিজানের কাছে গত ১৩ ফেব্রুয়ারী স্থানীয় দৈনিক সোনালী সংবাদ পত্রিকায় প্রকাশিত দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে অবৈধ মাইক্রো বাস স্ট্যান্ড উত্ত্যক্তের শিকার রোগী ও স্বজনরা খবর কে করছে ও কেন করা করা হয়েছে জানতে চেয়ে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ শুরু করেন। এক পর্যায়ে সাংবাদিক মিজান প্রকাশ্য প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেন মাইক্রো বাস মালিক সমিতির সভাপতি লাজির উদ্দিন।

জানা যায়, প্রায় ৫বছর ধরে ১৫-২০টি মাইক্রোবাস নিয়ে অবৈধভাবে দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে গড়ে উঠছে একটি স্ট্যান্ড। মাইক্রোবাসের ড্রাইভার ও হেলপাররা বসে আছেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গেটে। হাসপাতালের স্ট্যান্ডকে ঘিরে ড্রাইভার ও হেলপাররা রাত লাগলেই শুরু করে দেন মাদকের জমজমাট আসর। মাদক সেবন করে স্বাস্থ কমপ্লেক্সের ভিতরেই তাদের মাতলামিতে দিনরাত অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন রোগী ও রোগীর স্বজনরা। গত কয়েক বছরধরে প্রভাবশালীর দাপটে দুর্গাপুরের মাইক্রোবাস মালিকরা বাজারে মাইক্রো পাকিং করার জায়গা না থাকার অজুহাতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে স্ট্যান্ডের কাজ করে আসছেন। অনেক সময় প্রশাসনের চাপে পাকিং জাগয়া দখল মুক্ত করলেও কিছু দিন হতে না হতেই প্রভাবশালীদের দাপটে আবারও স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ভিতরেই মাইক্রোবাস পাকিং শুরু হয়। ড্রাইভার ও হেলপাররা দিন-রাত হাসপাতাল গেট সংলগ্ন অপেক্ষা করে বিড়ি-সিগারেট ও অন্যান্য নেশা জাতীয় দ্রব্য পান করেন।

দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল মোতালেব জানান, সাংবাদিককে প্রকাশ্য লাঞ্চিত ও প্রাণ নাশের ঘটনায় থানা অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান ওসি।

স/অ

Print