গণশুনানির নাটক না করে মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত: তথ্যমন্ত্রী

February 22, 2019 at 10:36 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, দেশ আজ মর্মাহত, শোকাহত। এমন সময়ে গণশুনানির নামে নাটক না করে তাদের উচিত মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীতে শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালা মিলনায়তনে অভিনয় শিল্পীসংঘের দ্বিবার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধনের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

চকবাজারের অগ্নিকান্ড নিয়ে বিএনপির মন্তব্য দায়িত্বজ্ঞানহীন ও সম্পূর্ণ অগ্রহণযোগ্য বলে দাবি ড. হাছান বলেন, সরকারবিরোধী আন্দোলনের নামে বিএনপি মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে, সে দায় নেতা হিসেবে বেগম জিয়া বা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, কেউই এড়াতে পারেন না। সেগুলো এমন দুর্ঘটনা ছিল না, ঘটনা ছিল। যারা মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করে, তাদের মুখে অগ্নিকান্ড নিয়ে এমন মন্তব্য শোভা পায় না। আর সব কিছুতে রাজনিতি নিয়ে আসা দেশ ও জাতির জন্য অশুভ।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, মর্মান্তিক এ ঘটনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিনিদ্র রাত কাটিয়েছেন, বারবার দিকনির্দেশনা দিয়েছেন, সরকার পূর্ণ তৎপর রয়েছে। বিরোধী দলের উচিত এধরনের দুর্ঘটনায় সরকারের পাশে দাঁড়িয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা।

এসময় প্রতিবেশি দেশ ভারতের উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচনের কয়েক মাস আগের সময়টিতেও সে দেশে বিরোধীদল দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের সাথে কাঁধ মিলিয়ে কাজের ঘোষণা দিয়েছে।

এর আগে অভিনয় শিল্পীসংঘের সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, শিল্পচর্চা জাতিকে সমৃদ্ধ করে। দেশের সংস্কৃতি অঙ্গনে অভিনয়শিল্পীদের অবদান সমুন্নত রাখতে বর্তমান সরকার গণমাধ্যমের যুগান্তকারী বিকাশ সাধনসহ বাস্তবমুখী পদক্ষেপসমূহ গ্রহণ করেছে। এসময় এ বছরে একুশে পদকপ্রাপ্ত তিন শিল্পী সুবর্ণা মুস্তফা, লিয়াকত আলী লাকী ও লাকী ইনামকে অভিনয়শিল্পী সংঘের সম্মাননা স্মারক তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী।

অভিনয়শিল্পী সংঘের সভাপতি শহিদুল আলম সাচ্চুর সভাপতিত্বে সম্মেলনে সৈয়দ হাসান ইমাম, মামুনুর রশীদ, ড. ইনামুল হক, তৌকির আহমেদ, আফসানা মিমি, মাহফুজ, তানভীন সুইটি, তানিয়া, আহসান হাবিব নাসিমসহ কয়েকশত অভিনয়শিল্পী উপস্থিত ছিলেন।

 

Print