সশস্ত্র বাহিনীকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ ইমরান খানের

February 22, 2019 at 11:22 am

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

ভারত যদি হামলা চালায় তার মোক্ষম জবাব দিতে সশস্ত্র বাহিনীকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

বৃহস্পতিবার জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির সঙ্গে বৈঠকের পর সরকারি এক বিবৃতির মাধ্যমে ইমরান খান এ নির্দেশ দেন। বৈঠকে প্রশাসন ও সামরিক বিভাগের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিবৃতিতে ইমরান খান বলেন, পাকিস্তান যে তার জনগণকে রক্ষা করতে সক্ষম এবং এ ব্যাপারে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ তা আমরা দেখিয়ে দিতে চাই।

তিনি বলেন, পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনীকে, ভারতের যে কোনো আগ্রাসন বা অপচেষ্টার ক্ষেত্রে পাকিস্তানকে মোক্ষম জবাব দিতে হবে। এ জন্য পাকিস্তান সেনাবাহিনীকে সর্বদা প্রস্তুত থাকতে হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে ইমরান খান ভারতের প্রতি হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছিলেন- পাকিস্তান ভারতের যে কোনো হামলার কঠিন জবাব দেবে।

ভারতীয় বাহিনীর ওপর হামলার বিষয়ে ভারত সরকারকে উদ্দেশ করে ইমরান খান বলেন, এ হামলার তদন্তে ভারত যে সহযোগিতা চাইবে, তার সব কিছুই দিতে প্রস্তুত পাকিস্তান।

তিনি বলেন, ভারত সরকার কোনো প্রমাণ ছাড়াই এ হামলার দায়ভার পাকিস্তানের ওপর চাপাচ্ছে। এ ধরনের হামলার সঙ্গে জড়িত হয়ে পাকিস্তানের কী লাভ হবে?

কাশ্মীরে সংগঠিত এ হামলার তদন্তে পাকিস্তান সহায়তা করতে চায় জানিয়ে ইমরান খান বলেন, ভারত এ ঘটনার সঙ্গে পাকিস্তানের কারও জড়িত থাকার প্রমাণ দিক, আমি নিজে অ্যাকশন নেব।

ভারত সরকারকে তাদের চিন্তায় পরিবর্তন আনার আহ্বান জানিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি স্পষ্ট ভাষায় ঘোষণা করতে চাই- পাকিস্তান এখন নতুন চিন্তাধারায় এগোচ্ছে। আমরা সবার সঙ্গে শান্তিপূর্ণ অবস্থানে বিশ্বাস করি। ভারতেরও চিন্তার পরিবর্তন দরকার। ভারত যদি এভাবে পুরনো চিন্তাধারায় আচ্ছন্ন থাকে, তা হলে উভয় দেশের আগামীর পথচলা কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

সন্ত্রাসী কার্যক্রমের বিরুদ্ধে পাকিস্তান কঠোর অবস্থানে রয়েছে জানিয়ে ইমরান খান বলেন, সন্ত্রাস নির্মূলে ভারতের সঙ্গে কথা বলতে আমরা রাজি। সন্ত্রাসবাদ দমনে গত পনেরো বছর আমরা লড়াই করছি।

৭০ হাজারের বেশি মানুষ সহিংসতায় নিহত হয়েছে। সন্ত্রাসী কার্যক্রমে যদি পাকিস্তানকে কেউ ব্যবহার করে তা হলে সে পাকিস্তানেরই শত্রু বলে মন্তব্য করেন ইমরান খান।

ভারতের পক্ষ থেকে অব্যাহত যুদ্ধের হুমকির বিষয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সবাই জানি যুদ্ধ শুরু করাটা সহজ ব্যাপার, কিন্তু তা শেষ করা মানুষের পক্ষে সম্ভব হয় না।

যদি ভারত আগ বাড়িয়ে কোনো ভুল পদক্ষেপ গ্রহণ করে, তা হলেও পাকিস্তান বসে থাকবে না। বরং সমুচিত জবাব দেবে।

যুদ্ধ নয়, আলোচনার মাধ্যমেই শান্তি আসতে পারে জানিয়ে ইমরান খান আরও বলেন, ভারত সরকারকে এ বিষয়ে ভাবতে হবে যে, কাশ্মীরি তরুণরা এখন আর মৃত্যুকে ভয় পায় না। এর মূল কারণ বের করতে হবে।

আফগানিস্তানে ১৭ বছর যুদ্ধের পর বিশ্ববাসী স্বীকার করছে যে আলোচনার মাধ্যমেই শান্তি আসতে পারে। আফগানিস্তানের মতো কাশ্মীর সমস্যাও আলোচনার মাধ্যমে সমাধান হবে।

পুলওয়ামায় ভারতীয় আধাসামরিক বাহিনীর ৪৪ সৈন্য নিহত হওয়ার ঘটনায় পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

Print