‘বৈধ পথে রেমিটেন্স বৃদ্ধি করতে ফি মওকুফ করা হবে’

February 11, 2019 at 1:11 pm

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই বাংলাদেশ কনস্যুলেট আয়োজিত বৈধ পথে রেমিটেন্স প্রেরণ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত  হয়েছে। গত শনিবার দুবাই কনস্যুলেট মিলানায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ডা. মোহাম্মদ ইমরানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন কনস্যুলেটের প্রধান সচিব প্রবাস লামারাং। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি। স্বাগত বক্তব্য রাখেন দুবাইয়ে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল ইকবাল হোসেন খান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম।

সভায় বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠাতে সবচে বড় অন্তরায় টাকা পাঠানোর চার্জ। সেই চার্জ মওকুফ করতে সাবেক অর্থমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিলেও তা কার্যকর হয়নি। এ চার্জ মওকুফ করতে প্রবাসীদের দাবির প্রেক্ষিতে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার এ ব্যাপারে উদ্যোগ নিচ্ছে। খুব দ্রুত এটা কার্যকর করা হবে।

সভায় প্রবাসী শ্রমিকদের লাইফ ইনস্যুরেন্স, বিমানে লাশ বহন, জনতা ব্যাংকের এটিএম বুথ দ্রুত স্থাপন এবং প্রবাসীদের বণ্ড খুলে দেওয়ার দাবি জানান প্রবাসীরা। এ সময় জনতা ব্যাংকের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক জানান, ২৬ মার্চের আগে আরব আমিরাতে ৮টি বুথ স্থাপন করা হবে।

ছোট ফ্লাইট হওয়াতে বিমানে লাশ বহনে সমস্যা জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত বছর হজের ফ্লাইটে বড় ফ্লাইট দেওয়াতে ছোট ফ্লাইট মধ্যপ্রাচ্যে দেওয়ার পর থেকে এ সমস্যা চলছে। তবে এ ব্যাপারে বড় ফ্লাইট দিতেও প্রতিমন্ত্রী জানান।

প্রবাসে দক্ষ কর্মী পাঠাতে সরকার ইতিমধ্যে কাজ করছে বলে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইতিমধ্যে ৩০ হাজার ড্রাইভারকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। সবক্ষেত্রে এ উদ্যোগ ক্রমান্বয়ে নেওয়া হচ্ছে।

এ ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে নারী শ্রমিকদের হয়রানি বন্ধে সরকার মধ্যপ্রাচ্যের সব দেশে সেফহোম খুলছে বলেও তিনি জানান। সৌদি আরবের রিয়াদ এবং জেদ্দায় তা স্থাপন করা হয়েছে। আরব আমিরাতেও করা হবে বলে জানান তিনি।

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম রেমিটেন্সে প্রেরণকারী দেশ আরব আমিরাত। বিগত ৭ বছর ধরে এখানে ভিসা বন্ধ আছে। আগামী ১৭ তারিখ প্রধানমন্ত্রীর আমিরাত সফরের মাধ্যমে ভিসার কিছু একটা হবে বলে আশা ব্যক্ত করেন অনুষ্ঠানের অনেকের সাথে প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

 

সূত্র: কালের কণ্ঠ

Print