আবারও ইভান্সের ব্যাটে বড় ইনিংস

January 23, 2019 at 3:15 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

আগের ম্যাচেই বিধ্বংসী সেঞ্চুরি করেছিলেন লরি ইভান্স। সেটা ছিল চলতি বিপিএলের প্রথম সেঞ্চুরি। আজও রাজশাহী কিংসের ত্রাণকর্তা হলেন এই ইংলিশ ওপেনার। তিন অংকে পৌঁছতে না পারলেও ৫৬ বলে ৭৪ রানের ইনিংস খেলে চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে চ্যালেঞ্জিং স্কোর ছুঁড়ে দেওয়ায় বড় অবদান রেখেছেন তিনি। নির্ধারিত ২০ ওভারে কিংসের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ৫ উইকেটে ১৫৭ রান।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে মহাবিপদে পড়ে মেহেদী মিরাজের দল। দলীয় ৫ রানে ফ্র্যাইলিংকের বলে ক্যাচ দেন সৌম্য সরকার (৩)। স্কোরবোর্ডে ৩ রান যোগ হতে না হতেই খালেদ আহমেদের বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হয়ে যান মার্শাল আইয়ুব (১)। বিপদ সামাল দিতে আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান ওপেনার লরি ইভান্সের সঙ্গে জুটি বাঁধেন টেন ডয়েশ্চট। ২০ বলে ২৮ রান করা ডয়েশ্চটকে ইয়াসির আলীর তালুবন্দি করেন আবু জায়েদ রাহী। তবে দুর্দান্ত হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন ইভান্স।

উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জাকির হাসন ৭ বলে ৫ রান করে সানজামুলের শিকার হন। আজ আর তিন অংকে যেতে পারেননি ইভান্স। তার ৫৬ বলে ৮ চার ২ ছক্কায় গড়া ৭৪ রানের ঝকঝকে ইনিংসটি থামে খালেদ আহমেদের বলে মুশফিকুর রহিমের তালুবন্দি হয়ে। শেষদিকে ক্রিস্টিয়ান জংকার (২০ বলে ৩৬) এবং মেহেদী হাসানের (৪ বলে ১০) ব্যাটে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৫৭ রান তোলে রাজশাহী কিংস। খালেদ আহমেদ নেন ২ উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন ফ্র্যাইলিংক, সানজামুল এবং আবু জায়েদ।

চলতি আসরে ৬ ম্যাচে ৫ জয় ও ১ হারে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে আছে মুশফিকুর রহিমের দল চিটাগং ভাইকিংস।  অন্যদিকে ৭ ম্যাচে ৪ জয় ও ৩ হারে ৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পঞ্চমস্থানে রাজশাহী কিংস। দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মিরপুর শের-ই-বাংলায় মুখোমুখি হবে খুলনা টাইটান্স এবং সিলেট সিক্সার্স।

Print