রাজশাহীতে পুলিশের হাত থেকে পাসপোর্ট অফিসের দালাল ছিনিয়ে নিলো সহযোগীরা

January 14, 2019 at 4:07 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহী পাসপোর্ট অফিসের এক দালালকে পুলিশের হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে সহযোগী দালালরা।  যদিও পুলিশ বলেছে, এর সত্যতা নেই। তবে এ ঘটনা সংক্রান্ত ছবি সংবাদকর্মীদের কাছে চলে এসেছে।

আজ সোমবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে নগরীর শালবাগান এলাকায় অবস্থিত পাসপোর্র্ট অফিসের পাশে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় দুই ভুক্তভোগিকে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ। 

ভুক্তভোগি মিজানুর রহমান বলেন, তাদের বাড়ি তানোরে। তারা কয়েকদিন থেকে পাসপোর্ট অফিসে ঘুরছেন নিজের পাসপোর্ট করার জন্য। গতকাল পাসপোর্ট অফিসে দালাল ছানা ৭০০ টাকায় করে নিতে চান। পরে ছানা মিজানুরের থেকে ৭০০ টাকা নেয়। পরে তার পাসপোর্ট এর কাজ নিজেই শেষ করেছে। 

তিনি আরো বলেন, তাই সে ছানা থেকে টাকা চাইলে ছানাসহ কয়েকজন দালাল মিজানুর ও তার ছোট ভাই লিমনকে মারধর করে। এসময় মিজানুর দুই’শ টাকা রেখে ৫০০ টাকার ফেরত দেওয়ার প্রস্তাব করলে তাদের আরো মারধর করে।

   

পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে দালাল ছানাকে আটক করে ফেলে। এসময় স্থানীয় কালু নামের এক ব্যক্তি এসে চন্দ্রিমা থানার এসআই সেলিমের কাছে থেকে জোর করে ছানাকে ছিনিয়ে নেয়। পরে ভুক্তভোগি দু’জনকে পুলিশ থানায় নিয়ে যায়।   

দালাল ছিনিয়ে  নেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে চন্দ্রিমা থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) হুমায়ুন কবীর বলেন, এমন ঘটনা ঘটেনি। ঘটনাস্থল থেকে ভুক্তভোগিকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তাদের অভিযোগ শোনা হচ্ছে। ভুক্তভোগীরা মামলা দিলে পুলিশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ৩ মার্চ রাজশাহী পাসপোর্ট অফিসে দালালির সময় ছানাকে হাতেনাতে আটক করা হয়। পরে জামিনে বের হয়ে আসেন তিনি।

স/আ

Print