বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের টিকে থাকা: সমস্যা ও সমাধান শীর্ষক সংলাপ

December 6, 2018 at 9:42 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম টিকে থাকা বা না থাকার প্রশ্নে প্রধান বাধা হলো সংকুচিত বিজ্ঞাপন বাজার, সরকারি বিজ্ঞাপন নীতিমালায় স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে নীতি-সুবিধা না দেওয়া, সংবাদমাধ্যম মালিকদের অনৈতিক চর্চা, সাংবাদিকদের ঐক্যহীনতা, দক্ষ সাংবাদিকের অভাব।

বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের জার্নালিজম, কমিউনিকেশন অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের ইনফোস্মিথস’ ল্যাবের আয়োজনে সাস্টেইনিং লোকাল নিউজ মিডিয়া: চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড ওয়ে-আউট’ শীর্ষক একটি সংলাপে বক্তারা এসব মত দেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে টায় বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা ভবনের সেমিনার কক্ষে মতবিনিময় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

বিভাগের কো-অর্ডিনেটর মো. মশিহুর রহমানের সঞ্চালনায় এই সংলাপে অংশ নেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর ড. প্রদীপ কুমার পান্ডে, দৈনিক সোনালী সংবাদের সম্পাদক লিয়াকত আলী, দৈনিক সোনার দেশের সম্পাদক হাসান মিল্লাত, দৈনিক সানশাইনের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক মো. ইউনুস আলী, দৈনিক আমাদের রাজশাহীর সম্পাদক আফজাল হোসেন, অনলাইন সংবাদ মাধ্যম সিল্কসিটি নিউজের সম্পাদক রফিকুল ইসলাম ও রেডিও পদ্মার স্টেশন ম্যানেজার শাহানা পারভীন।

সংলাপে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপদেষ্টা ড. সাইদুর রহমান খান, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. রাশিদুল হক, ট্রেজারার প্রফেসর ড. তারিক সাইফুল ইসলাম, রেজিস্ট্রার ড. মো. মহিউদ্দীন, ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর শহিদুর রহমান, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. সিদ্দিকুর রহমান সহ বিভাগের শিক্ষকশিক্ষিকা ও ছাত্রছাত্রীবৃন্দ।

সংলাপে আলোচকদের মধ্যে দৈনিক সানশাইনের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক মো. ইউনুস আলী বলেন, ‘পত্রিকার মেরুদন্ড হলো অর্থনীতি। অর্থনৈতিক উন্নয়ন হলেই সংবাদমাধ্যম টিকে থাকবে জোরালোভাবে।’

সোনালী সংবাদের সম্পাদক লিয়াকত আলী বলেন, ‘ রাজশাহী অর্থনৈতিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া নগরী। শিল্পের অবকাঠামো এখানে নেই।’

সিল্কসিটি নিউজের সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘মিডিয়ার চ্যালেঞ্জ সব সময়ের জন্য। মিডিয়া এগিয়ে যাচ্ছে, ভবিষ্যতেও যাবে। এর জন্য দক্ষ জনশক্তি খুঁজতে হবে।’

স/আর

Print