সাদুল্যাপুরে অদ্ভুত আকৃতির নবজাতকের বাড়িতে ইউএনও

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

সাদুল্যাপুরে অদ্ভূদ আকৃতির সন্তানের দায়িত্ব নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রহিমা খাতুন। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে চিকিৎসক টিম নিয়ে ওই নবজাতক সন্তানের বাড়িতে যান ইউএনও।।

রোববার বিকালে ওই নবজাতকের খোঁজ নিতে ইউএনও রহিমা খাতুনের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প.প.কর্মকর্তা ডা. আবু আহাম্মেদ আল-মামুন, ইউপি চেয়ারম্যান এজেডএম সাজেদুল ইসলাম স্বাধীন, স্থানীয় শিক্ষক আমিনুল ইসলামসহ আরও অনেকে।

ডা. আবু আহাম্মেদ আল-মামুন বলেন, ওই নবজাতকের মাথার নিচে বিশালাকৃতির টিউমার ও একটি ইঞ্জুরি রয়েছে। দ্রুত উন্নত চিকিৎসা সেবা দিতে হবে।

সাদুল্যাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রহিমা খাতুন বলেন, সদ্য ভূমিষ্ট এ সন্তানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তার পরিবারকে নগদ টাকা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও রোববার রাতেই সরকারি ব্যবস্থায় নবজাতককে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

প্রসঙ্গত গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের বুড়িরভিটা এলাকার দরিদ্র এরশাদুল হক কোনার স্ত্রী জোলেখা বেগম (৩০) শনিবার ভোরে একটি অদ্ভুত আকৃতির ছেলে সন্তান জন্ম দেন। সন্তানটির হাত-পা ও চোখ-মুখ স্বাভাবিক থাকলেও মাথার নিচে বড় আকৃতির টিউমার কিংবা দুই মাথা বিশিষ্ঠ লক্ষণীয়। এ খবরটি বিভিন্ন পত্রিকাসহ ফেসবুকে প্রকাশ হলে জেলা প্রশাসনের দৃষ্টিগোচর হয়।

Print