মানবতাবিরোধী অপরাধ : পটুয়াখালীর পাঁচজনের রায়ের অপেক্ষা

August 13, 2018 at 10:37 am

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধে পটুয়াখালীর পাঁচজনের বিরুদ্ধে আজ সোমবার রায় দেবেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

গতকাল রোববার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির বেঞ্চ রায়ের এ দিন দেন।

এ মামলায় আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর জেয়াদ আল মালুম ও রেজিয়া সুলতানা চমন। আসামিদের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আ. সাত্তার পালোয়ান।

গত ৩০ মে পটুয়াখালীর পাঁচ আসামির বিষয়ে যুক্তিতর্ক শেষে যেকোনো দিন রায় (সিএভি) ঘোষণা করবে বলে আদেশ দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। এটি হবে যুদ্ধাপরাধের মামলায় ৩৪তম রায়।

২০১৭ সালের ৮ মার্চ পটুয়াখালীর ইসহাক সিকদারসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ট্রাইব্যুনাল। অন্য চারজন হলেন আবদুল গণি হাওলাদার, আবদুল আওয়াল ওরফে মৌলভি আওয়াল, আবদুস সাত্তার প্যাদা ও সুলাইমান মৃধা।

এর আগে ২০১৬ সালের ১৩ অক্টোবর এই পাঁচজনের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করে প্রসিকিউশন। ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর ট্রাইব্যুনাল এই পাঁচজনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। এরপর পাঁচজনকেই গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সত্যরঞ্জন রায় জানান, তাঁদের সবার বয়স ষাটোর্ধ্ব। তাঁদের বিরুদ্ধে একাত্তরে সংঘটিত হত্যা, গণহত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগসহ ছয় ধরনের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধে একাত্তরে হত্যা ও ১৭ জনকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। এর মধ্যে এখনো আটজন বীরাঙ্গনা জীবিত আছেন।

Print