রাসিক নির্বাচন: জামানত বাজেয়াপ্ত হচ্ছে তিন মেয়র প্রার্থীর

July 31, 2018 at 9:52 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহী সিটি নির্বাচনে এবার ৫ জন মেয়র প্রার্থী অংশ নিলেও তিনজনেরই জামানত বাতিল (বাজেয়াপ্ত) হচ্ছে। মোট ভোটের আট ভাগের এক ভাগ ভোটও না পাওয়ায় তিন প্রার্থীর জামানত বাতিল হবে। এই তিন প্রার্থী হলেন, গণসংহতি আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী মুরাদ মোর্শেদ, বাংলাদেশ জাতীয় প্রার্টির প্রার্থী হাবিবুর রহমান ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী শফিকুল ইসলাম।

রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা আতিয়ার রহমান জানান, নির্বাচনে মোট ভোটের আট ভাগের এক ভাগ ভোট পেলে প্রার্থীর জামানাত বাতিল হয় না। কিন্তু সেই হিসেবের নিচে যদি কোনো প্রার্থী ভোট পান, তাহলে তার জামানত বাতিল হয়ে যায়।

তিনি আরো জানান, রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এবার মোট ভোট পড়েছে দুই লাখ ৫০ হাজার ৮৮১ টি। এর মধ্যে বাতিল হয়েছে তিন হাজার ৬৯১টি। সেই হিসেবে প্রার্থীকে অন্তত ৩১ হাজার ৩৬০টি করে ভোট পেলে তার জামানত বাতিল হবে না। কিন্তু রাসিক নির্বাচনে এবার দুজন মেয়র প্রার্থী ছাড়া অন্য তিনজনই ওই পরিমাণ ভোটের ধারে-কাছেও যেতে পারেননি।

নির্বাচন কমিশন সূত্র মতে, রাসিক নির্বাচনে এবার মোট ভোটার ছিল তিন লাখ ১৮ হাজার ১৩৮জন। এর মধ্যে  ‘নৌকা’ প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন এক লাখ ৬৫ হাজার ৯৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ‘ধানের শীষ’ প্রতীকে পেয়েছেন ৭৭ হাজার ৭০০ ভোট। অন্য তিন প্রার্থীদের মধ্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ‘হাতপাখা’ প্রতীকের প্রার্থী শফিকুল ইসলাম পেয়েছেন তিন হাজার ২৩, গণসংহতি আন্দোলন সমর্থিত ‘হাতি’ প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মুরাদ মোর্শেদ এক হাজার ৫১ এবং বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির ‘কাঁঠাল’ প্রতীকের প্রার্থীর হাবিবুর রহমান পেয়েছেন মাত্র ৩২০ ভোট। এতে করে লিটন-বুলবুল ছাড়া বাকি তিনজনেরই জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। 

স/আর

Print