৯০ মিনিটের ট্রেলার: ভুল না ভাইরাল?

July 6, 2018 at 5:37 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

সনি পিকচার্স এন্টারটেইনমেন্টের জন্য এমন ভুল নতুন নয়। তবে এটা কি নিছকই ভুল, নাকি সিনেমাকে ভাইরাল করার প্রচেষ্টায় এক অভিনব বিপণনকৌশল-এ নিয়ে চলছে জোর গুঞ্জন। সম্প্রতি ইউটিউবে সনি পিকচার্স তাদের প্রযোজিত ছবি ‘খালি: দ্য কিলার’-এর ট্রেলার আপলোড করে। কিন্তু ট্রেলার দেখে তো ভক্তদের চক্ষু চড়কগাছ। ৯০ মিনিটের ট্রেলার!

ভুলটা এখানেই। সনি পিকচার্স ছবির ট্রেলারের বদলে একেবারে গোটা চলচ্চিত্রই ইউটিউবে তুলে দিয়েছিল। সঙ্গে সঙ্গেই ছবির লিংক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে যায়। টুইটারে সনির এই বোকামি নিয়ে টুইটও করেছেন অনেকে। কেউ কেউ একে বলেছেন ‘মহা ভুল’, কেউ করেছেন হাসাহাসি। এক দর্শক ট্রেলার নামে প্রকাশিত পুরো ছবিটি দেখে টুইটারে লিখেছেন, ‘ট্রেলারটা একটু স্পয়লার হয়ে গেল না? সম্ভবত গোটা ছবিটাই তুলে দিয়েছে তারা।’

এভাবে টুইটারে সনির এই কাণ্ড নিয়ে হাসাহাসির সাড়া পড়ে গেছে। এমনকি অনলাইনে সিনেমা নিয়ে পর্যালোচনা সাইট রেডিটেও বিষয়টি নিয়ে বেশ শোরগোল চলেছে। কেউ বলেছেন, এটা দুর্ঘটনা হতে পারে। তবে সনি পিকচার্স যে এবারই প্রথম ভুল করেছে, তা নয়। এর আগেও দ্য অ্যামাজিং স্পাইডার ম্যান ২ ছবিটি তাদের দক্ষিণ কোরিয়ার দর্শকদের জন্য খোলা ইউটিউব চ্যানেলে পুরোপুরি তুলে দিয়েছিল। অবশ্য সনি এ নিয়ে টুঁ-শব্দটি করেনি। এমনকি চার ঘণ্টার মধ্যেও এটি তুলে নেয়নি। ভুল স্বীকারও করেনি। এতে অনেকেই মনে করছেন, এটা আসলে সনির সিনেমা ভাইরাল করার একটা প্রচেষ্টা হতে পারে। এটা তাদের বিপণনকৌশলের অংশ। কারণ, ছবিটি নাকি ইতিমধ্যে ইউরোপের বিভিন্ন অংশে প্রদর্শিত হয়েছে। তবে খুব একটা সাড়া মেলেনি। তাই অনেকের মনেই এখন প্রশ্ন জেগেছে যে ব্যর্থ ছবিকে আলোচনায় তুলতে এবং ভুলের মধ্য দিয়ে ছবিতে ভাইরাল করতেই কি এমন ঘটনা ঘটাল সনি পিকচার্স এন্টারটেইনমেন্ট? বিবিসি।

Print