নারী সৈনিকের ঝুলন্ত লাশ

February 26, 2018 at 10:10 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

হালিমা আক্তার (২০) নামের এক নারী সৈনিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত হালিমার বাড়ি নরসিংদী জেলার পলাশ উপজেলার বালুরচর গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের আবুল কালামের মেয়ে। হালিমা অবিবাহিত ছিলেন।

কুমিল্লার ময়নামতি সেনানিবাসের ফিল্ড ওয়ার্কশপের ব্যারাকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে বৈদ্যুতিক পাখার সঙ্গে ঝুলে থাকা হালিমাকে উদ্ধার করে সেখানকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। প্রাথমিকভাবে একে আত্মহত্যা বলে মনে করছে পুলিশ। তবে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত হালিমা কুমিল্লার ময়নামতি সেনানিবাসের ভেতরের ১২৭ ফিল্ড ওয়ার্কশপের ব্যারাকে থাকতেন।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ছালাম মিয়া বলেন, কুমিল্লা সেনানিবাসের সৈনিক ছিলেন হালিমা আক্তার। সোমবার দুপুর ১২ টায় ব্যারাক থেকে তাঁর কাজে আসার কথা ছিল। নির্ধারিত সময়ে না আসায় সেনাবাহিনীর অন্য সদস্যরা সেখানে গিয়ে দেখতে পান দরজা বন্ধ। এরপর তাঁরা জানালা দিয়ে দেখেন বৈদ্যুতিক পাখার সঙ্গে ঝুলে আছেন হালিমা আক্তার। পরে সেনাবাহিনীর সদস্যরা তাঁকে উদ্ধার করে কুমিল্লা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নেয়।

ওসি বলেন, সেনাবাহিনীর জ্যেষ্ঠ ওয়ারেন্ট অফিসার নিজামুল আহসান কুমিল্লা সেনানিবাস পুলিশ ফাঁড়িতে লিখিতভাবে অভিযোগ করেছেন। সোমবার বিকেলেই পুলিশ সিএমএইচে যায়। সেখানে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। নিহত ব্যক্তির গলায় ওড়নার দাগ রয়েছে। এরপর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। প্রাথমিকভাবে আলামত দেখে ধারণা করা হচ্ছে হালিমা আত্মহত্যা করেছেন।

সূত্র: প্রথম আলো

Print