রাজশাহীতে যৌন হয়রানীর অভিযোগে অধ্যক্ষের অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন

February 12, 2018 at 9:39 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:
ছাত্রীদের যৌন হয়রানী ,অর্থ আত্বৎসাত ও অপসারণের দাবি, অধ্যক্ষ জহুরুল আলমের শাস্তি ও বিচারের দাবিতে রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে রাজশাহী নগরীর মতিহার থানাধীন কাপাসিয়া বাজারের সামনে ঢাকা রাজশাহী মহাসড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় কাপাসিয়া এলাকায় অবস্থিত মহানগর টেকনিক্যাল এন্ড বি.এম ইন্সটিটিউট এর শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মচারীরা অধ্যাক্ষ রিপনের অপসারন ও শাস্তি দাবি নিয়ে ব্যানার হাতে মহাসড়কের এক পাশ দিয়ে সারিবদ্ধ ভাবে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ জানায়।

মানববন্ধনে ওই কলেজের সহ-কারী অধ্যাপক মোঃ আসাদুজ্জামান রাজু জানায়, অধ্যক্ষ রিপনের খারাপ দৃষ্টিভঙ্গি আর অসৎ মানুষিকতার কারনেই এ প্রতিষ্ঠান আজ ধ্বংসের দারপ্রান্তে। তিনি যে অপকর্মের করেছেন তার জন্য আজ শুধু এ কলেজই নয় পুরো কাপাসিয়া এলাকার দূর্নাম দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে গেছে। শুধু তাই নয় কাপাসিয়া এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রীদের যৌন হয়রানীর অপবাদ এ অঞ্চলে এই প্রথম। একজন শিক্ষক হয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তথা এলাকার নাম কলঙ্কিত করার অপরাধে তিনি রিপনের অপসারনসহ কঠোর শাস্তির দাবিও জানান। এ বিষয়ে তিনি আরএমপির পুলিশ কমিশনার মহাদয়ের সূদৃষ্টি কামনা করেন।

প্রায় আধাঘন্টা ব্যপি সময় ধরে চলা মানবন্ধনে উক্ত কলেজের শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মচারীসহ প্রায় তিন শতাধীক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত (৫ ফেব্রুয়ারী) অধ্যক্ষ জোহুরুল ইসলাম রিপনের বিরুদ্ধে স্কুল শিক্ষার্থী (১৩)কে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে নগরীর মতিহার থানাধীন কাপাশিয়া এলাকায় অবস্থিত মহানগর টেকনিক্যাল এন্ড বিএম ইন্সটিটিউটের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীরা কাপাশিয়া মোড়ে ব্যনার-ফেস্টুন হাতে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে অধ্যক্ষ রিপনের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে। এ সময় রাস্তার দুই পাশে অসংখ্য যানবাহন আটকা পড়ে।

পরে কাটাখালি পৌরসভার মেয়র মোঃ আব্বাস আলী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীদের শান্ত করে এ সময় অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে মতিহার জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মোঃ শামসুল আজম, মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মেহেদি হাসান ও ওসি (তদন্ত) মোঃ মাহমুব আলমসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ঘটনস্থলে মোতায়েন থাকতে দেখা যায়।
স/শ

Print