শোলাকিয়ায় টার্গেট রুখে দিয়েছে পুলিশ

July 8, 2016 at 11:33 am

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

রাজধানীর গুলশানের পর শোলাকিয়াতেও সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করতে জীবনবাজি রেখেছে পুলিশ। আর এ সাহসের কঠিন মূল্য দিয়ে জীবন দিতে হয়েছে দুই পুলিশ কনস্টেবল জহিরুল ইসলাম তপু (২৪) ও আনসারুল হককে (৪৫)।

এ দুই পুলিশের প্রাণের বিনিময়ে ব্যর্থ হয়ে গেছে শোলাকিয়ায় সন্ত্রাসীদের বড় ধরনের টার্গেট। আর সন্ত্রাসীরা সফল হলে শোলাকিয়া হয়ত হতে পারতো এক মৃত্যুপুরীর নাম। তারা প্রথমে শক্তিশালী হাতবোমা ছোড়ার পর পরই অ্যাকশনে যায় পুলিশ।

দু’জন পুলিশ সদস্য নিহত ও ছয়জন আহত হয়েছেন। নিহত দুই পুলিশ সদস্যকে শেষ বিদায়ে দেওয়া হয়েছে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার।

এ ঘটনায় মূলত সন্ত্রাসীরা নিজেদের ছক কাটা মিশন সফল করতে পারেননি। আটক দুর্বৃত্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে তাদের প্রকৃত লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বেরিয়ে আসবে। তবে পুলিশের ধারণা, দেশীয় সন্ত্রাসী বা জঙ্গিরাই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।

সূত্র জানায়, শোলাকিয়ায় সন্ত্রাসী হামলার মধ্য দিয়ে লাখ লাখ মানুষকে বড় ধরনের ক্ষতি হওয়ার হাত থেকে বিপদমুক্ত করেছে সাহসী ও বীরত্বপূর্ণ এ পুলিশ সদস্যরা।

এর আগেও হরতাল-অবরোধে ভয়ঙ্কর ও নির্মম আক্রমণের শিকার হতে হয়েছে পুলিশকে। সেসময়ও তারা এসব প্রতিহত করে।

এসব বিষয়ে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মঈনুল হক জানান, দু’টি ঘটনাতেই পুলিশ প্রথমেই প্রতিরোধ সৃষ্টি করতে পেরেছে। পুলিশই পেরেছে শোলাকিয়ার ঘটনা পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করতে। নয় তো অন্য মানুষদের জীবনহানির ঘটনা ঘটতে পারতো। তারা নিজেরা জীবন দিয়ে ব্যাপক ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করেছে। পুলিশের এমন সাহসিকতা ও বীরত্ব দেশপ্রেমের অনন্য নজির।

সূত্র: বাংলানিউজ

Print