বুধবার , ১০ মে ২০২৩ | ১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ ও দুর্নীতি
  3. অর্থ ও বাণিজ্য
  4. আইন আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. কৃষি
  7. খেলা
  8. চাকরি
  9. ছবিঘর
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দুর্ঘটনা
  13. ধর্ম
  14. নারী
  15. নির্বাচিত খবর

৮ দিনের রিমান্ডে ইমরান

Paris
মে ১০, ২০২৩ ৮:০৯ অপরাহ্ণ

সিল্কসিটি নিউজ ডেস্ক :

দুর্নীতির মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৮ দিনের রিমান্ড দিয়েছেন পাকিস্তানের একটি আদালত।

বুধবার রাজধানী ইসলামাবাদের পুলিশ লাইন এলাকার একটি জবাবদিহি (অ্যাকাউন্টেবিলিটি) আদালতে ইমরান খানকে হাজির করার পর বিচারক মোহাম্মদ বশির এই আদেশ দেন বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের দৈনিক ডন।

পাকিস্তানের অ্যাকাউন্টেবিলিটি আদালতগুলো মূলত দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরো’র (ন্যাব) মামলার বিচারকাজ পরিচালনা করে।

গতকাল (মঙ্গলবার) দুটি মামলার শুনানিতে হাজিরা দেওয়ার জন্য ইসলামাবাদ হাইকোর্টে গিয়েছিলেন ইমরান খান, সেখান থেকে পাকিস্তানের আধা সামরিক বাহিনী রেঞ্জার্স এবং ন্যাবের একটি যৌথদল পিটিআই চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করে।

বুধবার দুপুরের দিকে ন্যাবের একটি দল তাকে আদালতে হাজির করে।

যে পরোয়ানার ভিত্তিতে ইমরান খানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, সেটি জারি করা হয়েছিল গত ১ মে। ন্যাবের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট জেনারেল নাজির আহমেদ বাট স্বাক্ষরিত সেই পরোয়ানা অনুসারে, আল-কাদির ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ইমরান খানের সংশ্লিষ্টতার যে অভিযোগ উঠেছিল— তার সত্যতা পেয়েছে ন্যাব। পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকার এবং ন্যাবের ভাষ্য— ওই মামলার আসামি হিসেবেই মঙ্গলবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে পিটিআই চেয়ারম্যানকে।

বুধবার অ্যাকাউন্টিবিলিটি আদালতে ইমরান খানকে হাজির করার পর ইমরানকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি চেয়ে ১৪ দিন রিমান্ডে রাখার আবেদন করে ন্যাবের একটি দল। সেই আবেদনের ওপর হওয়া শুনানিতে অবশ্য ইমরানের আইনজীবী ন্যাবের এই আবেদনের বিরোধিতা করে বলেন, যে মামলায় পিটিআিই চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে— সেটি ন্যাবের এক্তিয়ারের মধ্যে পড়ে না। তিনি আরো বলেন, এই মামলার বিচারকাজ হওয়া উচিত সাধারণ মুক্ত কোনো আদালতে।

ইমরান খানের আইনজীবীর যুক্তির পাল্টা যুক্তি দিয়ে ন্যাবের আইনজীবী বলেন, যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া মেনেই ইমরান খানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, গ্রেপ্তারের আগে ইমরান খানকে পরোয়ানা দেখানো হয়েছে এবং যে অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে— যুক্তরাজ্যে জাতীয় অপরাধ দমন কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে সেটির তদন্তও সম্পন্ন করেছে।

শুনানির সময় আদালতে উপস্থিত ইমরান খান বলেন, তাকে গ্রেপ্তারের আগে পরোয়ানা দেখানো হয়নি, বরং গ্রেপ্তারের পর ন্যাব ভবনে নিয়ে গিয়ে তা দেখানো হয়েছে। গ্রেপ্তারের সময় তাকে শারীরিকভাবে আঘাত করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন পিটিআই চেয়ারম্যান।

উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আদালত ১৪ দিনের পরিবর্তে ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ন্যাবের অভিযোগ অনুযায়ী, ক্ষমতায় থাকাকালে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের সোহাওয়া শহরে আল-কাদির বিশ্ববিদ্যালয় প্রকল্পের নামে ব্রিটেনের একটি রিয়েল এস্টেট কোম্পানিকে রাষ্ঠীয় কোষাগার থেকে ১ কোটি ৯০ লাখ ডলার দিয়েছিলেন ইমরান খান, তার স্ত্রী বুশরা বিবি এবং ইমরানের রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনসাফের কয়েক জন জেষ্ঠ্য নেতা। বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য যে জমি বরাদ্দ নেওয়া হয়, সেখান থেকেও ইমরান ও তার স্ত্রী সুবিধা নিয়েছেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে পরোয়ানায়।

সর্বশেষ - আন্তর্জাতিক