১৫ দিনে ১০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা

ঈদ সামনে রেখে প্রতি বছরই দেশে বিপুল পরিমাণ রেমিট্যান্স পাঠান প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এবারও ব্যত্যয় ঘটেনি তার। ঈদুল আজহার আগে চলতি (জুলাই) মাসের প্রথম ১৫ দিনে ১২৬ কোটি ৪২ লাখ মার্কিন ডলার বা ১০ হাজার ৭০০ কোটি টাকার বেশি রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বৈধপথে রেমিট্যান্সে দুই শতাংশ নগদ প্রণোদনার সঙ্গে কয়েকটি ব্যাংক আরো এক শতাংশ প্রণোদনা দেওয়ায় গত দুই বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে বেড়েই চলেছে রেমিট্যান্স।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের মাধ্যমে। এ ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ৩৮ কোটি ৭৮ লাখ ডলার। ডাচ বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ১৬ কোটি ৯২ লাখ ডলার। অগ্রণী ব্যাংকের মাধ্যমে ১৩ কোটি ৭৬ লাখ ডলার ও সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে সাত কোটি ৬৪ লাখ ডলার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হিসাবে জুলাই মাসের প্রথম ১৫ দিনে প্রবাসীরা ১২৬ কোটি ৪২ লাখ ডলার দেশে পাঠিয়েছেন। বাংলাদেশি টাকায় এ অর্থের পরিমাণ ১০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা। রেমিট্যান্সের এ ধারা অব্যাহত থাকলে চলতি মাসে রেমিট্যান্সের পরিমাণ ২৫০ কোটি ডলার অতিক্রম করবে। তার আগের মাস গত জুনে ১৯৪ কোটি মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠান।

সদ্য শেষ হওয়া ২০২০-২১ অর্থবছরে মোট রেমিট্যান্স এসেছে দুই হাজার ৪৭৭ কোটি ৭৭ লাখ ডলার বা দুই লাখ ১০ হাজার ৬১০ কোটি টাকা। এর আগে ২০১৯-২০ অর্থবছরে এক হাজার ৮২০ কোটি ডলার বা ১৮ দশমিক ২ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স এসেছিল এক হাজার ৬৪২ কোটি ডলার।

 

সুত্রঃ কালের কণ্ঠ