হেরে গেল মাইক্রোসফট, টিকটক কিনছে ওরাকল

নিউজ ডেস্ক

চাপ প্রয়োগ করে করে টিকটকের মার্কিন ব্যবসা বিক্রির জন্য ট্রাম্প প্রশাসন যে সময়সীমা বেধে দিয়েছিল তা পেরোনোর আগেই জানা গেলো, জনপ্রিয় এই ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপটি বিক্রির জন্য ওরাকল করপোরেশনকে বেছে নিয়েছে টিকটকের মালিকানাধীন চীনা কোম্পানি বাইটড্যান্স।

সোমবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এবং বার্তা সংস্থা এপির প্রতিবেদনে সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাতে এ খবর জানানো হয়েছে। টিকটক কেনার এই প্রতিযোগিতায় আরেক মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট মাইক্রোসফটের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে বাইটড্যান্স। টিকটক বিক্রির জন্য কিছুদিন ধরে মার্কিন ক্রেতা খুঁজছিল বাইটড্যান্স।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনা অ্যাপ টিকটককে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি হিসেবে অভিহিত করে গত মাসে এক নির্বাহী আদেশ জারি করে টিকটকের মালিকানা যুক্তরাষ্টের কোনো প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রির জন্য সময়সীমা বেধে দেন। ট্রাম্প প্রশাসনের বেঁধে দেয়া সময় ছিল ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

ট্রাম্প নির্বাহী আদেশ জারির পর হুমকি দিয়ে বলেন, এই সময়সীমার মধ্যে টিকটক বিক্রি না করা হলে যুক্তরাষ্ট্রে তা নিষিদ্ধ করা হবে। ট্রাম্পের এমন হুমকির পর থেকে সম্ভাব্য ক্রেতাদের কাছে টিকটকের মার্কিন ব্যবসা বিক্রি করার জন্য বাইটড্যান্স মার্কিন জায়ান্ট ওরাকল এবং মাইক্রোসফটের সঙ্গে আলোচনা শুরু করে

এখন ওরাকলের কাছে মার্কিন ব্যাবসা বিক্রির জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও চীন সরকারের অনুমোদনের প্রয়োজন হবে টিকটকের। মাইক্রোসফট স্থানীয় সময় রোববারই অবশ্য জানায় যে, টিকটকের মার্কিন ব্যাবসা কেনার জন্য তারা যে প্রস্তাব দিয়েছিল তা ফিরিয়ে দিয়েছে অ্যাপটির মালিকানা প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স।

ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ জারির পর অবশ্য মার্কিন সরকার কর্তৃক এই নিষেধাজ্ঞার হুমকিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে একটি মামলা দায়ের করেছিল টিকটক। তাতে কোম্পাটিনি দাবি করে যে, ট্রাম্পের আদেশ আন্তর্জাতিক জরুরি অর্থনৈতিক শক্তি আইনের অপব্যবহার। কারণ প্ল্যাটফর্মটি ‘অস্বাভাবিক এবং অসাধারণ হুমকির’ নয়।

 

সূত্রঃ জাগো নিউজ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।