স্ন্যাকস খেয়ে ওজন কমাবেন? তালিকায় রাখেন এই খাবারগুলো

স্ন্যাকস আমাদের সবার অনেক পচ্ছন্দ। সন্ধ্যার খাবারে বা দুই খাবারের মাঝখানে আমরা সবাই সচারাচর স্ন্যাকস খেয়ে থাকি। তবে যখন ওজন কমানো প্রশ্ন আসে তখন সবাই স্ন্যাকস বিমুখ হয়ে যায়। তবে এমন কিছু স্ন্যাকস আছে যা খেয়েও আপনার ওজন কমানো সম্ভব।

আলমন্ড:

গবেষণা বলছে, আলমন্ড ক্ষুধা কমাতে সাহায্য করে এবং আলমন্ড খেলে পেটও অনেকক্ষণ ভরা থাকে। এছাড়া আলমন্ড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে, কোলেস্টরলের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। এজন্য যারা ওজন কমাতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আলমন্ড হতে পারে আদর্শ স্ন্যাকস।

বেরি:

বেরিতে কার্বের পরিমাণ খুবই কম খেতে। এজন্য ক্ষুধা লাগলে বেরি খেতে পারেন। পেটও ভরা থাকবে আবার শরীরে অল্ড কিছু ক্যালোরি গ্রহণ করা হবে।

ডার্ক চকলেট:

ডার্ক চকলেট আপনার ক্ষুধা কমাবে আর এতে করে খাওয়ার প্রতি প্রবণতাও কমে যাবে। পেট সবসময় ভরা থাকবে ডার্ক চকলেট খেলে আর এতে করে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

গাজর:

গাজরে যেমন ক্যালোরি কম তেমনি বেশি ফাইবার রয়েছে। এজন্য ক্ষুধা লাগলেই গাজর খান। এতে করে একদিকে যেমন পেট ভরবে অন্যদিকে ওজন বাড়বে না।

নারিকেল:

নারিকেলে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি এবং ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড রয়েছে। নারিকেলের উপকারের কথা বলে শেষ করা যাবে না। একদিকে যেমন হার্ট সুস্থ রাখে অন্যদিকে হজম ভালো করে ওজন কমাতে সাহায্য করে।

চিকপিস:

চিকপিসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার ও প্রোটিন। চিকপিস খেলে আপনার পেট অনেক সময় ভরা থাকবে। এতে করে বাড়তি ক্যালোরি গ্রহণের প্রবণতা কমবে।

আঙ্গুর:

আঙ্গুরে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা দীর্ঘ সময় পেট ভরে রাখতে সাহায্য করবে। এতে করে অনেকক্ষণ পেট ভরা থাকবে।

পপকর্ন:

পপকর্নে ফাইবারের পরিমাণ  এবং ক্যালোরির পরিমাণ বেশি। সন্ধ্যার নাস্তায় বা সিনেমা দেখতে দেখতে পপকর্ন খাওয়া যেতে পারে।

 

সুত্রঃ কালের কণ্ঠ

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।